Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

‘এবার শিক্ষার্থীর ভোটাধিকার কাড়তে ডাকসু নির্বাচন’ -মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দীন আহমদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৬ পিএম | আপডেট : ২:৩০ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
জাতীয় নির্বাচনের মতো এবার শিক্ষার্থীর ভোটাধিকার কাড়তে ডাকসু নির্বাচনের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দীন আহমদ। 
 
তিনি বলেন, গত ২৮ বছর ধরে যেখানে ডাকসু নির্বাচন হয়নি সেখানে ভোট চুরির মোক্ষম সময় হিসেবে এ নির্বাচন দেওয়া হয়েছে।
 
সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে খালেদা জিয়াসহ সব রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির দাবিতে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় এ অভিযোগ করেন হাফিজ উদ্দীন আহমদ।
 
তিনি বলেন, সদ্য জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নাগরিকের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। বিএনপি প্রার্থীদের প্রচার ও ভোটের মাঠে নামতে দেওয়া হয়নি। ভোটের আগের দিন জালভোট দিয়ে ব্যালট ভরা হয়েছে। বর্তমান সরকার সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে ক্ষমতায় এসেছে।
 
মেজর হাফিজ বলেন, গত ২৮ বছর ধরে ডাকসু নির্বাচন হয়নি। তড়িঘড়ি করে ভোট চুরির মোক্ষম সময় হিসাবে এখন ব্যবস্থা করা হয়েছে। জাতীয় নির্বাচনের মতো এই নির্বাচনেও শিক্ষার্থীদের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে।
 
বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, আজ সমাজে বৈষম্য প্রকট, দেশে আইনের শাসন নেই, বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন না। এখন পর্যন্ত সাগর-রুনির বিচার হয় না, সেখানে নির্দোষ খালেদা জিয়ার মুক্তি এভাবে হবে না। আমাদের রাজপথে এসে আন্দোলন করে নেত্রীকে মুক্ত করতে হবে।
 
নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের রহমতুল্লাহ, বিএনপি  নেতা আলহাজ মোশাররফ হোসেন, বিএনপি নেতা লায়ন আনোয়ার প্রমুখ।


 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডাকসু নির্বাচন

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ