Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

নিয়োগকর্তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে

সউদী আরবে গৃহকর্মীর সঙ্কট নিরসন

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

সউদী নিয়োগকর্তাদের কারণে দেশটিতে বাংলাদেশী মহিলা গৃহকর্মীদের সঙ্কট দিন দিন বাড়ছে। প্রবাসী গৃহকর্মীদের সঙ্কট নিরসনের লক্ষ্যে সউদী নিয়োগকর্তাদের রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে। এ জন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক মন্ত্রণালয়কে অনতিবিলম্বে বাস্তবমুখী উদ্যোগ নিতে হবে। শিগগিরই সউদী-বাংলাদেশ জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সভা আহবান করে এ ব্যাপারে কার্যকরী সিদ্ধান্ত নিতে হবে। গতকাল সোমবার সকালে কাকরাইলস্থ বিএমইটির সভাকক্ষে সউদী আরবে মহিলা গৃহকর্মী সঙ্কট শীর্ষক গণ-শুনানিতে নেতৃবৃন্দ একথা বলেন।
বিএমইটির মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মো.সেলিম রেজার সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএমইটির যুগ্ম-সচিব মোহাম্মদ আতাউর রহমান, বায়রার সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব আলহাজ আবুল বাশার, এস এ ট্রেডিং ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী আব্দুল আলিম, বিএমইটির পরিচালক আতিকুর রহমান, ফোরাব সভাপতি টিপু সুলতান ও মহাসচিব আরিফুর রহমান, বাংলাদেশ নারী শ্রমিক কেন্দ্র-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুমাইয়া ইসলাম, সউদী ফেরত নির্যাতিতা নূরজাহান বেগম, সউদী আরবে কারাবন্দি রীনা আক্তারের মাতা আজমেরি বেগম।
আজমেরি বেগম তার মেয়ে রীনা আক্তারকে সউদী কারাগার থেকে দ্রুত উদ্ধার করে দেশে ফেরত আনার দাবীতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। উম্মুল র্কুরাহ রিক্রুটিং এজেন্সীর মাধ্যমে দীর্ঘ ১২ মাস আগে সউদী আরবে যায়। নির্যাতনের শিকার রীনা আক্তার বিগত ১২ মাস যাবত সউদী কারাগারে দুর্বিষহ জীবন-যাপন করছে।তাকে দ্রুত দেশে ফেরত আনার দাবী জানানো হয়। সউদী ফেরত নির্যাতিতা নারী নূর জাহান বেগম প্রবাসে নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। ইসমাঈল রিক্রুটিং হাউজের দালাল ৫০ হাজার টাকা নিয়ে নূর জাহান বেগমকে সউদীতে পাঠিয়েছিল। বিএমটির মহাপরিচালক মো.সেলিম রেজা ইসমাঈল রিক্রুটিং হাউজের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। বিএমটির মহাপরিচালক মো.সেলিম রেজা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী প্রত্যেক জেলা থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ১ হাজার যুবককে বিদেশে পাঠাতে হবে। তিনি বলেন, বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীদের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দেয়া হচ্ছে। প্রত্যেক জেলা জনশক্তি কর্মসংস্থান অফিস থেকেই স্মার্টকাড দেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ