Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ বন্ধে টাস্কফোর্স গঠন

সংসদে তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

শিগগিরই নবম ওয়েজ বোর্ডের গেজেট প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। গতকাল সোমবার বিকালে জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে খুলনা-৪ আসনের এমপি সালাম মুর্শেদীর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, নবম ওয়েজ বোর্ড গঠনের পর গত ১ মার্চ ২০১৮ থেকে সব গণমাধ্যমকর্মীকে ৪৫ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। ওয়েজ বোর্ডের রোয়োদাদের সুপারিশ পরীক্ষা করে শিগগিরই গেজেট প্রকাশ করা হবে। দেশের দৈনিক পত্রিকাগুলোতে ৯ম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের দাবিতে ২০১৬ সাল থেকে দাবি আদায়ের আন্দোলন শুরু করে সাংবাদিকরা। দীর্ঘ আলোচনা ও প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর গত বছরের ১১ সেপ্টেম্বর সংবাদপত্র ও সংবাদ সংস্থাগুলোতে নিয়োজিত সাংবাদিক-কর্মচারীদের জন্য মূল বেতনের ৪৫ শতাংশ হারে অন্তরর্বতীকালীন মহার্ঘ্য ভাতা সুবিধা ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে তথ্য মন্ত্রণালয়। এরপর নতুন সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২১ জানুয়ারি নতুন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের শক্তিশালী কমিটি গঠন করে দেন। গত ২৬ জানুয়ারি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এবং সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের উপস্থিতিতে পত্রিকা মালিকদের সংগঠন নোয়াব এর সঙ্গে এক বৈঠকে রোয়েদাদ বাস্তবায়নের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। বিষয়টি নিয়ে আরও আলোচনার সিদ্ধান্ত হয় সে বৈঠকে। জাতীয় পার্টির এমপি নাসরিন জাহান রত্মার সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, সমস্ত অনলাইন গণমাধ্যমকে অনলাইন নীতিমালার আওতায় নিবন্ধিত হতে হবে।
অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী জানান, কিছু বেসরকারি টেলিভিশনের মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রচারের বিষয়ে আমরা ওয়াকিবহাল। আমরা কিছুদিনের মধ্যে টিভি চ্যানেলগুলোর মালিক ও নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসবো। চ্যানেলগুলোতে যাতে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন না করা হয় সেই মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি জানান, মন্ত্রিসভার অনুমোদিত সম্প্রচার নীতিমালার আলোকে একটি স¤প্রচার কমিশন গঠন করা হবে। সব চ্যানেলগুলো যাতে এই নীতিমালায় চলে ওই কমিশনের মাধ্যমে সেই ব্যবস্থা করা হবে।
জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রদর্শন এবং ভিডিও পাইরেসি বন্ধ করতে তথ্য মন্ত্রণালয় একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছে। এই টাস্কফোর্স পর্নো বা অশ্লীল ভিডিও এবং পাইরেসির কারণে সিডি ও ভিডিও জব্দ করে থাকে। এছাড়া দায়ীদের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেপ্তার করে থাকে।
তিনি জানান, অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রদর্শন এবং ভিডিও পাইরেসি রোধকল্পে তাৎক্ষণিক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মনিটরিং সেলও গঠন করা হয়েছে। হাছান মাহমুদ বলেন, সৃষ্টিশীল চলচ্চিত্র নির্মাণে উৎসাহিত করার জন্য প্রতিবছর পূর্ণদৈর্ঘ্য ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের লক্ষ্যে সরকার অনুদান দিয়ে থাকে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৫টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের অনুকূলে ২ কোটি ৮০ লাখ টাকা এবং ৬টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের অনুকূলে ৬০ লাখ টাকাসহ সর্বমোট ৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা সরকারি অনুদান দেয়া হয়েছে। মন্ত্রী জানান, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে অনুদান প্রদানের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ