Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

দিনাজপুরে তিন মাথা বিশিষ্ট শিশুর জন্ম!

দিনাজপুর অফিস | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:৪০ এএম

দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক অদ্ভুদ আকৃতির শিশু জন্ম নিয়েছে। শিশুটি হাত-পা ও শরীরের বিভিন্ন অংশ স্বাভাবিক থাকলেও মাথাটি ফুল আকৃতির এবং চোখ দুটো বের হওয়া। শিশুটির মাথার আকৃতি দেখে অনেকে এই শিশুটিকে তিন মাথা বিশিষ্ট শিশু হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।
দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় সিজারের মাধ্যমে এই শিশুটির জন্ম দিয়েছেন পার্বতীপুর উপজেলার গুলপাড়া গ্রামের রিয়াজুল ইসলামের স্ত্রী জয়নব বানু।
রিয়াজুল ইসলাম জানায়, ৯ মাসের প্রসব বেদনা নিয়ে গত রোববার সকালে তার স্ত্রী জয়নব বানুকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এরপর গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় হাসপাতালের গাইনী বিভাগের চিকিৎসক ডা. শাবরিন আখতার সিজারের মাধ্যমে শিশুটিকে প্রসব করান। কিন্তু প্রসবের পর শিশুটিকে দেখে তারা হতবিহ্বল হয়ে পড়েন।
আজ সোমবার দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের গাইনী বিভাগে গিয়ে দেখা যায়, শিশুটিকে ইনকিউবেটরে রাখা হয়েছে। শিশুটির শরীরের দুটি হাত, দুটি পা’সহ মাথার নীচের শরীরের অংশ স্বাভাবিক থাকলেও মাথাটি অদ্ভুদ আকৃতির। মুখমন্ডলের উপরে তিনটি মাথার ন্যায়। চোখ দুরে বের হয়ে আসা।
হাসপাতালের গাইনী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শরিফুন নাহার প্রিয়া তাদের ভাষায় শিশুটির এই অদ্ভুদ আকৃতিকে “কনজিনটাল এ্যাবনরমালিটি” হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, “শিশুটির (আই) চোখ এখনও ডেভেলপ হয়নি। আইবল রিপ্লেস করেছে একটা সফ্ট টিস্যু দিয়ে। তার চোখের কর্ণিয়া ঠিকমত ডেভেলপ হয়নি। শিশুটি প্রি-ম্যাচিউরড ছিলো এবং হার্ট ডানদিকে যেটাকে আমরা ডেক্সোকার্ডিয়া বলে থাকি। শিশুটিকে ইনকিউবেটরে রাখা হয়েছে।” তিনি বলেন, শিশুটিকে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে।
এদিকে অদ্ভুদ আকৃতির এই শিশুটি জন্ম নেয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ায় শিশুটিকে দেখার জন্য হাসপাতালে উৎসুক জনতার ভীড় জমেছে।
রিয়াজুল ইসলাম ও জয়নব বানুর এটি দ্বিতীয় সন্তান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন