Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবির সাথে এলাকাবাসীর সংঘর্ষে নিহত ৪, আহত ১৫

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:১৬ পিএম | আপডেট : ৯:১১ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলায় সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী বিজিবির সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে বেতনা ক্যাম্পের বিজিবির ছোঁড়া গুলিতে ৩ জন পথচারী নিহত এবং ১৫ জনের বেশি সাধারণ মানুষ আহত হয়েছেন। আহতরা দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
নিহত ৩ জন হলেন- হরিপুর উপজেলার রুহিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে নবাব উদ্দীন (২৫), একই গ্রামের জাহির উদ্দীনের ছেলে সাদেক আলী (৪০), বহরমপুরের নূর ইসলামের ছেলে জয়নূল (১৩) ও আ: রহিমের ছেলে সাদেকুল ইসলাম (২৭)।
আহতরা হলেন, সাদেকুল ইসলাম, মিঠু, ইসহাদিতি, সাদেকুল, তৈমুর, রাসেল, জয়নুল, মুনতাহারা, বাবু, নওশাদ, হান্নান, জয়নুল ও নুর নাহারসহ ১৫ জন।
এলাকাবাসী জানায়, বহরমপুর গ্রামের মাহাবুব আলী গত ৬ মাসে আগে একটি গরু ক্রয় করে। সেই গরু আজ মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় যাদুরানী বাজারে বিক্রি করার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। এ সময় বেতনা ক্যাম্পের বিজিবির সদস্যরা ভারতীয় গরু মনে করে ক্যাম্পে গরুটি নিয়ে যাওয়ার জন্য মাহাবুবের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিতে গেলে মাহাবুবের পরিবার ও এলাকাবাসীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে।
পরে বিজিবি গুলি ছুঁড়লে যাদুরানী বাজারের উদ্দেশ্যে আসা ২ জন পথচারী ঘটনাস্থলেই নিহত হয় এবং প্রায় ১৫ জনের বেশি আহত হয়। এদিকে দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে আরও ১ জন মারা গেছে বলে তার পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন।
হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুস সামাদ বলেন, গুলিবিদ্ধ প্রায় ১৫ জনের গুলি বের করে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
হরিপুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম জে আরিফ বেগ বলেন, হরিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে জানা গেছে ১৪ জনকে দিনাজপুর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। যাওয়ার পথে কেউ মারা গেলে সে বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষে


আরও
আরও পড়ুন