Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

কেরানীগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪টি ইটভাটাকে ৪০লক্ষ টাকা জরিমানা

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭:২৬ পিএম

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ৪টি অবৈধ ইটভাটাকে ৪০লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। পরিবেশ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার(১২ফেব্রুয়ারী) দুপুরে কোন্ডা ইউনিয়নের মোল্লারহাট ও জাজিরা এলাকায় ভ্রাম্যমান আদাতের অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং শাখার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ এই ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের নেতৃত্ব দেন। পরিবেশের ছাড়পত্র, জেলা প্রশাসকের লাইসেন্সসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় মোল্লারহাট এলাকায় মেসার্স মোল্লা ব্রিকস, মেসার্স এম,এইচ এন্ড কোং , জাজিরা এলাকায় মেসার্স নিউ ব্রিকস এবং এবিএম ব্রিকস নাামে ৪টি ইটভাটাকে ৪০লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। এদের মধ্যে মোল্লা ব্রিকস ও এম.এইচ এন্ড কোং ব্রিকসকে ১১লক্ষ টাকা করে(প্রত্যেককে) এবং নিউ ব্রিকসকে ৮লক্ষ টাকা এবং এবিএম ব্রিকসকে ১০লক্ষ টাকা জরিমান করা হয়। মেসার্স নিউ ব্রিকস, মেসার্স এম.এইচ এন্ড কোং ব্রিকস দুইটির ইটভাটাকে ভেকুদিয়ে আংশকি ভেঙ্গে ফেলা হয় এবং মোল্লা ব্রিকসসহ ওই ৪টি ব্রিকস এর ইটভাটায় ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি থেকে পানি দিয়ে ভিজিয়ে দেয়া হয়। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা অঞ্চলের ডিডি মোঃ আল-আমিন,সহকারী পরিচালক(প্রচার) সমর দাস কৃষ্ণ, পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকাা জেলা কার্যালযেয়র উপ-পরিচালক খালেদ হাসান, সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলাম ও মিহির লাল সরদার। মোল্লা ব্রিকস এর মালিক মুসলিম উদ্দিন মোল্লা জানান, আমরা ইটভাটার অনুমতির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের অফিসে জমা দিয়েছি। পরিবেশ অধিদপ্তর আগে আমাদেরকে সতর্ক করলে আমরা এতো ক্ষতির সন্মুখিন হতাম না। পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং শাখার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ বলেন,কেরানীগঞ্জের জাজিরা ও মোল্লারহাট এলাকায় ইটভাটাগুলো অবৈধভাবে চালানো হচ্ছিল। তাদের বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি এমনকি তাদের কোন লাইসেন্সও নেই। তাই তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করে কয়েক দিনের জন্য সময় দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো অন্যান্য ইটভাটায় ভ্রাম্যামান আদালতের অভিযান চালানো হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্রাম্যমাণ আদালত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ