Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

বিচারাধীন মামলায় শিশু আসামির পরিচয় প্রকাশের গণমাধ্যমকে সতর্ক করলেন হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

শিশু আদালতে বিচারাধীন মামলায় আটক, বন্দি, অভিযুক্ত, আসামি বা সাক্ষী শিশুর ছবি, নাম, ঠিকানা ও পরিচয় প্রকাশের বিষয়ে সকল গণমাধ্যমকে সতর্ক করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রজিক আল জলিলের পর্যবেক্ষণসহ এ রায় দেন। একই সঙ্গে শিশুর ছবি যাতে প্রকাশ না পায় এজন্য আইন সচিব, তথ্য সচিব ও ল রিপোর্টার্স ফোরামকে তদারকি করতে বলেছেন আদালত।
রায়ের পর্যবেক্ষণে আদালত বলেছেন, প্রকাশিত খবরে শিশুর নাম, ঠিকানা, পরিচয় তুলে ধরার ক্ষেত্রে এবং খবরে সঠিক শব্দ চয়ন না করে ডেইলি স্টার বেআইনি কাজ করেছে। আদালত বলেছে, যেহেতু বিষয়টি নতুন, তাই কোনো সাজা বা জরিমানা না করে সতর্ক করা হল, যেন ভবিষ্যতে এমনটা আর না ঘটে।
রায়ে বলা হয়, শিশু আইনের মূল উদ্দেশ্য কোনো মামলার বিচারের ক্ষেত্রে তাদের গোপনীয়তা রক্ষা করা, যা বিচারপূর্ব, বিচার চলা ও বিচার পরবর্তী সময় পর্যন্ত বোঝায়। এ ক্ষেত্রে তাদের মর্যাদা বজায় রাখতে হবে, যাতে তারা সংশোধন ও পুনর্বাসনের সুযোগ পায়। গত বছরের ৫ নভেম্বর গোপালগঞ্জের শিশু আদালতের একটি রায়ের বিষয় নিয়ে বয় গেটস টেন ইয়ার্স ফর কিলিং ক্লাসমেট শিরোনামে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত প্রতিবেদনে দন্ডিত শিশুটির পরিচয়ও প্রকাশ করা হয়। শিশু আইনের লঙ্ঘন জানিয়ে গত বছর ১৮ নভেম্বর রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সাইয়্যেদুল হক সুমন।
আইন সচিব, তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব, ল রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি, ঢাকা রিপোর্টোর্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এবং ডেইলি স্টারের সম্পাদককে এ মামলায় বিবাদী করা হয়। ওই রিট আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে রুল জারি করেছিল হাইকোর্ট। রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে আদালত এ রায় দেন। আদালতে রিটকারী পক্ষে শুনানি করেন সাগুফতা তাবাসসুম আহমেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোখলেছুর রহমান। ডেইলি স্টারের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কাজী এরশাদুল আলম।
রায়ের পর ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়্যেদুল হক সুমন সাংবাদিকদের বলেন, শিশু আইনে বা কিশোর আদালতে কোনো মামলা যদি থাকে এবং এই মামলায় কোনো শিশু বা কিশোর জড়িত থাকলে তার নাম, ঠিকানা, পরিচিতি ব্যবহার করা যাবে না কোনো মিডিয়াতে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে সেজন্যে ডেইলি স্টারসহ সকল গণমাধ্যমকে সতর্ক কররেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ