Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

মানিকগঞ্জে ধর্ষণ মামলা দুই পুলিশের ছয় দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:২৩ এএম

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় তরুণী ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত ২ পুলিশ কর্মকর্তাকে ৬দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মানিকগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৭ এর বিচারক মোহাম্মদ সারোয়ার হোসেন এই আদেশ দেন। আদালতে দশদিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করলে তিনি ছয় দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এ সময় বাদী উপস্থিত ছিলেন না।বিপুল সংখ্যক আইনজীবী এবং পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।
আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ ফটো আসামি নির্দোষ ও ষড়যন্ত্রের শিকার দাবি করে রিমান্ড বাতিলের দাবি করেন। অপর পক্ষে কোর্ট ইন্সপেক্টর ১০ দিনের রিমান্ডের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করে বক্তব্য রাখেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে কোর্ট ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তরুণী ধর্ষণের অভিযোগে সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন এবং এ এসআই মাজহারুল ইসলামকে প্রাথমিকভাবে ঘটনায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় গত সোমবার রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।এর আগে তাদের দুজনকে সাটুরিয়া থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছিল। গতকাল রাতে ভুক্তভোগী তরুণীর ডাক্তারি পরিক্ষা সম্পন্ন হয়েছে, এখন পর্যন্ত রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. লুৎফর রহমান জানান ধর্ষণের রিপোর্ট পেতে দুইদিন সময় লাগবে। এর আগে গত রোববার এক তরুণী মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) রিফাত রহমান শামিমের কাছে লিখিত অভিযোগ করার পর তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। লিখিত অভিযোগে তরুণী দাবি করেন, তার খালা সাটুরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেনের কাছে প্রায় তিন লাখ টাকা পান। ওই টাকা আনতে ৬ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টার দিকে খালার সঙ্গে সাটুরিয়া থানায় যান। সেখান থেকে সেকেন্দার দুইজনকে নিয়ে সাটুরিয়া ডাক-বাংলোতে যান। ঐ দুই পুলিশ কর্মকর্তা বাংলোতে তরুণী ও তার খালাকে আলাদা ঘরে আটকে রাখেন। তরুণীকে অস্ত্রের মুখে ইয়াবা সেবনে বাধ্য করে একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন