Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

শাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে আ’লীগ-বামপন্থিদের বিজয়

সভাপতি সাইফুল, সম্পাদক আনোয়ার

শাবিপ্রবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:০৯ এএম | আপডেট : ১১:৩০ এএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের নিরঙ্কুশ বিজয় হয়েছে। নির্বাচনের ১১টি পদের সবকটি পদেই জয়লাভ করেছেন আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের পৃথক দুইটি প্যানেল। তবে ভরাডুবি হয়েছে বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষক প্যানেলের। নির্বাচনে সভাপতি পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. এসএম সাইফুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক পদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মো. আনোয়ার হোসেন জয়লাভ করেছেন।
মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত চলে। ভোট গণনা শেষে রাত ১২টায় নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার সহযোগী অধ্যাপক ড. আসিফ ইকবাল।
আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশের প্যানেল ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক পরিষদ’ থেকে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ ৯টি পদে জয়লাভ করেছেন। অন্যদিকে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের অন্য অংশের প্যানেল ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তচিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষক পরিষদ’ শুধুমাত্র দুইটি সদস্য পদে জয়লাভ করেছেন।
‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক পরিষদ’ প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. দীপেন দেবনাথ, কোষাধ্যক্ষ কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ও পলিমার সায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহিবুল আলম, ও যুগ্ম-সম্পাদক ফুড এন্ড টি টেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ আফজাল হোসেন জয়লাভ করেছেন।
এছাড়া একই প্যানেল থেকে সদস্য পদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল গণি, ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টি টেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. অনিমেষ সরকার, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আশরাফুজ্জামান ও অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল বাকী বিজয়ী হয়েছেন।
অন্যদিকে ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তচিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’ প্যানেল থেকে সদস্য পদে সিভিল এন্ড ইনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো: জহির বিন আলম ও সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক আমিনা পারভীন বিজয়ী হয়েছেন।
নির্বাচনে ১১টি পদের বিপরীতে শিক্ষকদের তিনটি প্যানেল থেকে মোট ৩৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। মোট ভোটার ছিলেন ৫৫০ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ