Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

দুই সিকিউরিটজ হাউজকে আর্থিক জরিমানা করেছে কমিশন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৮:১৭ পিএম

দেশের প্রদান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ২ সিকিউরিটিজ হাউজের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম খুঁজে পেয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- সাদ সিকিউরিটিজ (ডিএসই ট্রেক নং ১১৮) এবং সালতা কেপিট্যাল লিমিটেড (ডিএসই ট্রেক নং ৯৫) । সিকিউরিটিজ আইন লংঘন করায় হাউজগুলোকে দুটিকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বিএসইসি। কমিশনের ৬৭৫তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাদ সিকিউরিটিজ সমন্বিত গ্রাহক হিসাবে ৩১ মে ২০১৮ তারিখে ৩ কোটি ৯০ লাখ ১৯ হাজার ৬২০ টাকা ঘাটতির মাধ্যমে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ৮এ(১) এবং রুল ৮এ (২) লংঘন করা হয়েছে। আর পরিচালকদের ঋণ প্রদান ও পর্যাপ্ত ব্যালেন্স না থাকা সত্ত্বেও টাকা উত্তোলনের মাধ্যমে বিএসইসির নির্দেশনা নং এসইসি/সিএমআরআরসিডি/২০০১-৪৩/৩১ ও সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা ২০০০ এর বিধি ৪(৪) এর ডিড অব এগ্রিমেন্টের ক্লস ৫ ভঙ্গ হয়েছে। এছাড়া নগদ হিসাবে ঋণ দিয়ে মার্জিণ রুলস ও ৫ লাখ টাকার উপরে নগদ লেনদেনের মাধ্যমে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুলস ৮(১)(সিসি)(আই) ভঙ্গ হয়েছে। এ কারণে হাউজটিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেয় বিএসইসি।

এদিকে, সালতা কেপিট্যাল সমন্বিত গ্রাহক হিসাবে ৩১ মে ২০১৮ তারিখে ৩ লাখ ২২ হাজার ৭২০ টাকা ঘাটতির মাধ্যমে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ৮এ(১) এবং রুল ৮এ (২) লংঘন করা হয়েছে। আর অনুমোদিত প্রতিনিধির নামে বিও হিসাব খুলে পরিচালনা এবং নগদ হিসাবে ঋণ প্রদানের মাধ্যমে বিএসইসির নির্দেশনা নং এসইসি/সিএমআরআরসিডি/২০০১-৪৩/৩১ ও সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা ২০০০ এর বিধি ৪(৪) এর ডিড অব এগ্রিমেন্টের ক্লস ৫ ভঙ্গ হয়েছে। এছাড়া ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারে ঋণ দিয়ে মার্জিণ রুলস ভঙ্গ করেছে। এ কারণে হাউজটিকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেয় বিএসইসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ