Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ধবলধোলাই এড়ালো ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

সামনে ৪৮৫ রানের কঠিন চ্যালেঞ্জ। ইংল্যান্ডের ছড়ে দেওয়া সেই চ্যালেঞ্জের সামনে বুক চিতিয়ে দাঁড়াতে পারলেন কেবল একজন, রস্টর চেইস। টপ অর্ডার ব্যর্থ হওয়ার পর মিডিল অর্ডারদের কাছ থেকেও কোন সহযোগিতা পেলেন না ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলরাউন্ডার। সেন্ট লুসিয়া টেস্টেও হোয়াইটওয়াশ করা হলো না ইংল্যান্ডকে।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই টেস্ট দাপটের সঙ্গে জিতে আগেই সিরিজ নিশ্চিত করে রেখেছিল উইন্ডিজ। ড্যারেন সামি জাতীয় স্টেডিয়ামে চতুর্থ দিনে শেষ টেস্ট ২৩২ রানে জিতে ধবলধোলাই এড়ালো ইংল্যান্ড। ২০০৪ সালের পর ক্যারিবীয় সফরে মাত্র দ্বিতীয়বারের মত টেস্ট জিতলো ইংলিশরা। তবে সিরিজ হারের কারণে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচে নেমে গেছে জো রুটের দল।

দ্বিতীয় ইনিংসে ২৫২ রানে অল আউট হয়ে যায় উইন্ডিজ। এক প্রান্ত আগলে খেলতে থাকা চেইস ১০২ রানে অপরাজিত থেকে যান। বাকিদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন নয় নম্বর ব্যাটসম্যান আলজারি জোসেপ। ইনিংসের একমাত্র ফিফটি (৫৬) জুটিও আসে জোসেপ-চেইসের অষ্টম উইকেটে। ১০ রানের মধ্যে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে স্বাগতিকদের টপ অর্ডার ধ্বসিয়ে দেন জেমস অ্যান্ডারসন। মিডির অর্ডারে কোন জুটি দানা বাধতে দেননি মইন আলি। লেজমুণ্ডন করেন বেন স্টোকস।

দিনটা শুরু হয়েছিল ইল্যান্ডের ব্যাটিংয়ে। আগের দিন সেঞ্চুরি নিয়ে অপরাজিত থাকা জো রুট গ্যাব্রিয়েলের বলে আউট হওয়ার পরই ৫ উইকেটে ৩৬১ রানে আসে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা। চতুর্থ দিন মাত্র ৫.২ ওভার ব্যাট করে ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২৭৭ রানের জবাবে ১৫৪ রানে অল আউট হয় উইন্ডিজ।
তৃতীয় দিন গ্যাব্রিয়েলের সঙ্গে বাকবিতণ্ড হয় রুটের। স্টাম্পের মাইকে তা ধরা পড়ে। রুটকে ‘সমকামী’ বলে গালি দেন গ্যাব্রিয়েল। এজন্য আইসিসির কোট অব কন্ডাক্ট ভাঙার অভিযোগে অভিযুক্তও হয়েছেন ক্যারিবীয় পেসার। এজন্য তাকে ৪টি ওয়ানডে ম্যাচে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি।
২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে এই জয় নিশ্চয় ইংলিশদের আত্মবিশ্বাস যোগাবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড : ২৭৭ ও (আগের দিন ৩২৫/৪) ১০৫.২ ওভারে ৩৬১/৫ (ইনিংস ঘোষণা) (রুট ১২২, স্টোকস ৪৮*; রোচ ১/৪৫, গ্যাব্রিয়েল ২/৯৫, পল ১/১১, জোসেফ ১/৭২)। ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ১৫৪ ও (লক্ষ্য ৪৮৫) ৬৯.৫ ওভারে ২৫২ (চেইস ১০২*, হেটমায়ার ১৯, ডাওরিচ ১৯, রোচ ২৯, জোসেফ ৩৪; অ্যান্ডারসন ৩/২৭, স্টোকস ২/৩০, উড ১/৫২, মইন ৩/৯৯)। ফল : ইংল্যান্ড ২৩২ রানে জয়ী। ম্যাচসেরা : মার্ক উড। সিরিজ : ৩ ম্যাচ সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২-১ ব্যবধানে জয়ী। সিরিজসেরা : কেমার রোচ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন