Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ০৯ চৈত্র ১৪২৫, ১৫ রজব ১৪৪০ হিজরী।

গ্রেফতার হয়নি দুই গৃহকর্মী

ফলোআপ : ইডেনের সাবেক প্রিন্সিপাল খুন

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ইডেন কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহভাজন দুই গৃহকর্মী রেশমা ও স্বপ্নাকে গত ৪দিনেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত খুনিদের গ্রেফতার ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারে ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে পুলিশ- র‌্যাবের একাধিক টিম কাজ করছে।
নিউমার্কেট থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের জন্য আমাদের টিম কাজ করছে। দ্রুতই আসামিদের গ্রেফতার করতে আমরা সক্ষম হবো। আমরা তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে এগিয়েছি। আশানুরূপ অগ্রগতি হয়েছে এখন শুধু তাদের গ্রেফতারের পালা। নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। এই নির্মম হত্যাকান্ডটির ব্যাপারে আমরা নিজেরাও সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি।
গত রোববার ১০ ফেব্রুয়ারি বিকেলে রাজধানীর সায়েন্সল্যাবের সুকন্যা টাওয়ারের একটি ফ্ল্যাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ও স্বজনদের ধারণা ছিল মাহফুজাকে বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। পরে সোমবার নিহতের স্বামী ইসমত কাদির গামা নিউমার্কেট থানায় দুই গৃহকর্মীকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করেন। গত ১১ ফেব্রুয়ারি) ময়নাতদন্ত শেষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক (ডিএমসিএইচ) মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, নিহতের একটি আঙুল ভাঙা ছিলো। তাকে (মাহফুজা) মুখ চেপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যাকান্ড একজনের পক্ষে সম্ভব হয়নি। একাধিক ব্যক্তি এই হত্যার সঙ্গে জড়িত বলে মনে হয়। নিহত নারীর ঠোটে, মুখে, আঙুলে ধস্তাধস্তির চিহ্ন পাওয়া গেছে। সুকন্যা টাওয়ারে নিজের ফ্ল্যাট থেকে মাহফুজার লাশ উদ্ধারের পর থেকে দুই গৃহকর্মী রেশমা ও স্বপ্না পলাতক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুন

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন