Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

মিয়ানমারের বাড়াবাড়ি : আবারো দাবী করল সেন্টমার্টিন তাদের বলে

বিশেষ সংবাদদাতা কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৩:১৪ পিএম

আবারো বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনকে নিজেদের বলে দাবি করেছে মিয়ানমার। মিয়ানমারের একাধিক ওয়েবসাইটে সেদেশের ম্যাপে সেন্টমার্টিনকে নিজেদের অন্তর্গত দেখানো হয়েছে। বিষয়টি বন্ধু প্রতীম দেশ মিয়ানমারের বাড়াবাড়ি বলেই মনে করা হচ্ছে। তাই বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শহিদুল হক সূত্রে জানাগে, মানচিত্রে সেন্টমার্টিনকে মিয়ানমারের অন্তর্গত দেখানো হয়েছে। বিষয়টি অহেতুক বাড়াবাড়ি ছাড়া আরকিছু নয়। তবে আমরা রাষ্ট্রদূতকে ডেকেছি, তার কাছে এ সংক্রান্ত ব্যাখ্যা চাওয়া হবে। দেখি তিনি কী বলেন। সিনিয়র সচিব শহিদুল বলেন, গত বছর মিয়ানমারের জনসংখ্যাবিষয়ক বিভাগের ওয়েবসাইটে সেন্টমার্টিনকে তাদের মানচিত্রে দেখানো হয়। সে সময় রাষ্ট্রদূতকে ডেকে জোর প্রতিবাদ জানানো হলে তারা সেটি সরিয়ে ফেলেছিল।

তিনি আরও বলেন, মিয়ানমার তখন বলেছিলো, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান দিয়ে দেশটির ম্যাপ করানো হয়। প্রতিষ্ঠানটি ম্যাপ তৈরিতে ভুল করে।

বিষয়টিকে উসকানি হিসেবে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, ওরা মাঝে মাঝে উসকানি দেয়। তবে আমরা দু’দেশের সম্পর্ক আরও উন্নত করতে চেষ্টা করছি।

প্রসঙ্গত, গত বছরও তারা এমন দাবি করেছিল। তবে বাংলাদেশের প্রতিবাদের মুখে তারা সেই দাবি থেকে সরে এসেছিল।

গত বছরের ঘটনার পর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হয়, মিয়ানমার যদি এমন আপত্তিজনক কাজ চালিয়ে যেতে থাকে তবে বাংলাদেশ উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে। এবার মনে করা হচ্ছে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

Show all comments
  • Abdus Sobahan ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭:৪০ পিএম says : 0
    মিয়ানমার একটা সন্ত্রাসী রাস্ট্র।
    Total Reply(0) Reply
  • towfik ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:১৭ পিএম says : 0
    মিয়ানমার খুব বাড়াবাড়ি করে দরকার হয় আবার যুদ্ধ করব তবুও এইসব জোত চোর দের শায়েস্তা দরকার
    Total Reply(0) Reply
  • Elmar ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৩:৫০ পিএম says : 0
    রোহিঙ্গা ইস্যুতে তারা বুঝে গেছে যে আমাদের কূটনৈতিক দূর্বলতা রয়েছে এবং বৈশ্বিক অঙ্গনে আমাদের কোন বন্ধুরাষ্ট্র নেই।বাট তাদের চীনের মত শক্তিশালি বন্ধু থাকার জন্য ইদানীং আমাদের সাথে বেপরোয়া আচরণ করছে। সরকারের উচিত কূটনৈতিক শক্তি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করা। তানাহলে ভবিষ্যতে তারা সেন্টমার্টিন জোর করে দখল করে নিতে পারে।তাদের মত সন্ত্রাসী দেশকে মোকাবেলার জন্য সামরিক সামর্থ্যও বাড়ানো উচিত।কেননা আমরা শান্তিপ্রিয় জাতি বাট সবাইতো আর আমাদের মত হবেনা তাতো মিয়ানমারের আচরনেই বুঝা যাচ্চে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন