Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২২ মে ২০১৯, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

রাসেলের ডাকে টনক নড়েনি ফেডারেশনগুলোর

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:০৮ পিএম

নতুন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, এমপি’র ডাকে এখনো টনক নড়েনি জাতীয় ফেডারেশনগুলোর। তিনি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে গত ৮ জানুয়ারি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের (এনএসসি) অধিনস্থ সবগুলো ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনকে আহবান করেছিলেন লিখিতভাবে তাদের লিখিতভাবে পরিকল্পনা জমা দিতে। এনএসসি টাওয়ারের সভাকক্ষে সব ক্রীড়া ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে প্রথম মত বিনিময় সভায় এ আহবান জানান প্রতিমন্ত্রী রাসেল। কিন্তু প্রায় দেড়মাস হতে চললো- এখনো সব ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশন নিজেদের পরিকল্পনা জমা দেয়নি এনএসসিতে। যদিও ক’দিন আগে এনএসসি সচিব মো: মাসুদ করিম বলেছিলেন, তারা কিছু ফেডারেশনের কাছ থেকে লিখিত পরিকল্পনা পেয়েছেন। বৃহস্পতিবারও একই কথা বলেন তিনি। তবে কারা তাদের পরিকল্পনা জমা দিয়েছেন- এ ব্যাপারে কিছু জানাতে পারেননি এনএসসি সচিব। সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোয় খোঁজ নিয়ে তথ্য মেলেনি কারা পরিকল্পনা জমা দিয়েছে।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, তিনি প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশের এক সপ্তাহের মধ্যেই লিখিতভাবে পরিকল্পনা এনএসসিতে জমা দিয়েছেন। ওই সাধারণ সম্পাদকের অভিযোগ-এনএসসির ডেসপাস বিভাগে কোনো চিঠি দিলে তার বেশীরভাগই সংশ্লিষ্ট বিভাগ বা কর্মকর্তার হাতে সময়মতো পৌঁছায় না।

দেশের ক্রীড়াঙ্গনে এখন ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশন মিলিয়ে সংখ্যা ৫৩। এর মধ্যে হাতে গোনা ক’টি তাদের পরিকল্পনা জমা দিলেও তাতে সন্তুষ্ট নন এনএসসি সচিব মাসুদ করিম। তিনি নতুন কওে ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনগুলোকে চিঠি দেবেন বলে জানিয়েছেন। মাসুদ করিম বলেন, ‘আমরা প্রত্যেক ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনকে চিঠি দিয়ে তাদের পরিকল্পনা জমা দিতে বলবো। চিঠির খসড়া মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে সবুজ সংকেত পেলে দ্রুত চিঠি ইস্যু করা হবে।’

গত ৭ ফেব্রুয়ারি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়েছে সরকারের ইশতেহার বাস্তবায়নে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রথম সভা। ওই সভায় ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনগুলোতে পরিকল্পনা পাঠানোর নির্দেশের বিষয়টি উঠেছিল। আশানুরূপ সাড়া না পাওয়ায় ফেডারেশনগুলোকে চিঠি দিয়ে তাদের পরিকল্পনা, সমস্যা ও চাহিদাগুলো পাঠানোর নির্দেশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন