Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সীমান্তে হত্যা বন্ধের প্রত্যাশা

চট্টগ্রামে বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন সমাপ্ত

চট্টগ্রাম ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তে হত্যা বন্ধ করে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। গতকাল বৃহস্পতিবার নগরীর হালিশহরে বিজিবির দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়ন সদর দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তারা। দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়ন সদর দফতরে ৪ দিনব্যাপী (১১-১৪ ফেব্রুয়ারি) সীমান্ত সংক্রান্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের শেষ দিনে এ সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। প্রতি ৬ মাস পর পর নিয়মিত এ সীমান্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ও দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আমিরুল ইসলাম শিকদার বলেন, সীমান্ত সংক্রান্ত সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে এসেছি আমরা। সম্মেলনে সীমান্ত হত্যা বন্ধ করা, গুলিবর্ষণ রোধ, মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া, নারী ও শিশু পাচার রোধ করা এবং সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে বিভিন্ন নির্মাণ, উন্নয়ন কার্যক্রম ও সীমান্ত চুক্তি সঠিকভাবে অনুসরণের বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়েছে।
ফেনী নদীতে পানিবন্টন ও অতিরিক্ত পানি নিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে আমিরুল ইসলাম শিকদার বলেন, ফেনী নদীর পানি বন্টনের বিষয়ে যৌথ নদী কমিশনের মাধ্যমে কাজ হচ্ছে। তবে যেটুকু পানি নিয়ে যাওয়ার কথা তার চেয়ে বেশি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিষয়টি আমরা তাদের জানিয়েছি। এটি সম্পূর্ণভাবে যৌথ নদী কমিশনের ওপর নির্ভর করছে। তিনি বলেন, ভারত আমাদের বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র। আমরা সবসময় ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ঐতিহ্য ধরে রেখে কাজ করি।
বিএসএফ মিজোরাম ও কাচার ফ্রন্টিয়ারের মহাপরিদর্শক ড. কানহু চরণ মাহালি বলেন, মাদক, অস্ত্রসহ সব ধরনের চোরাচালান ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডার ব্যাপারে আমরা কঠোর অবস্থান নিয়েছি। ভারত সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে মাদক প্রবেশ বন্ধে বিজিবি ও বিএসএফ যৌথভাবে কাজ করছে। সংবাদ সম্মেলনে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএসএম আনিসুল হক, অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজেদুর রহমান, বিএসএফ ত্রিপুরার মহাপরিদর্শক সলমন ইয়াশ কুমার, মেঘালয়ের মহাপরিদর্শক কুলদীপ সাইনি উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ