Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ০৮ চৈত্র ১৪২৫, ১৪ রজব ১৪৪০ হিজরী।

ক্বিরাত সম্মেলন নতুন দিগন্তের সূচনা করেছে

গাউছুল আজম কমপ্লেক্সে আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

পি এইচ পি কুরআনের আলো ও বাংলাদেশ ক্বারী সমিতির যৌথ উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার রাজধানীর মাহখালীস্থ বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন ও মসজিদে গাউছুল আজম কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন ছিল দেশী-বিদেশী সকল গুরুত্বপূর্ণ ক্বারীদের মিলনমেলা। বাংলাদেশের সকল নবীন এবং প্রবীণ ক্বারীদের উপস্থিতিতে এ ক্বিরাত সম্মেলনের মাধ্যমে শুরু হলো বিশুদ্ধ কোরআন তিলাওয়াতের নতুন যাত্রা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি ও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক, আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি বজলুল হক হারুন এমপি, বিজিএমই-এর সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের মহাসচিব প্রিন্সিপাল শাব্বীর আহমদ মোমতাজী।
ক্বিরাত সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন বলেন, দেশি-বিদেশি ক্বারীগণের উপস্থিতিতে ক্বিরাত সম্মেলন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গাউছুল আজম ময়দান আজ ধন্য। দেশের নবীন-প্রবীণ সকল ক্বারীর উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন দিগন্তের সূচনা হলো। তিনি বলেন, বাংলাদেশের কিশোর ক্বারীরা কোন অর্থ ব্যয় ছাড়াই ট্রফি এনে বাংলাদেশকে সম্মানীত করছে। ক্রিকেটাররা ট্রফি এনে বাংলাদেশকে সম্মানীত করে বিপুল অর্থ ব্যয়ের মাধ্যমে।
তিনি বলেন, ইসলাম চর্চার ক্ষেত্রে বাংলাদেশসহ বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ মুসলিম দেশগুলোর অবস্থা ভয়াবহ। এ দেশগুলোর অবস্থা এমন হতে পারে, ইমাম খতিবের জন্য বাংলাদেশের উপর তাদের নির্ভর করতে হবে। তাই যারা নতুন ক্বারী তৈরী করছেন, তাদের দায়িত্ব হলো নবীন ক্বারীদের বিদেশী ভাষাসহ পরিপূর্ণ ইসলামী শিক্ষা দিয়ে তাদের তৈরি করা। যাতে তারা বিভিন্ন দেশে গিয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। যারা আজ নতুন ক্বারী তৈরি করছেন, তারা পি এইচ পি গ্রুপের সাথে থেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছেন। তাদেরকে আরো মনোযোগী হতে হবে। গাউছুল আজম মসজিদ যেকোন প্রয়োজনে তাদের পাশে থাকবে ইনশা আল্লাহ।
পি এইচ পি কুরআনের আলো’র চেয়ারম্যান ক্বারী মাওলানা আবু ইউসুফ বলেন, গাউছুল আজম মসজিদ কমপ্লেক্সে আজকের এই ক্বিরাত সম্মেলন এক ব্যাতিক্রমি অনুষ্ঠান। কারণ এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের নবীন-প্রবীণ সকল আলেম উপস্থিত আছেন। এর পূর্বে এরূপ উপস্থিতি ছিল না। পি এইচ পি কুরআনের আলো হাফেয ও ক্বারীদের নিয়ে বিগত ১১ বছর যাবৎ কাজ করে যাচ্ছে।
অনুষ্ঠানে বিদেশী ক্বারীগণের মধ্যে ক্বিরাত পেশ করেন, শায়েখ ক্বারী রেজা আইয়ুব (তাঞ্জানিয়া), শায়েখ ক্বারী ইয়াহইয়া শারকাভী (মিসর), শায়েখ ক্বারী জামাল শিহাব (মিসর), শায়েখ ক্বারী তৈয়ব জামাল (ভারত), শায়েখ ক্বারী ওসামা আল হাওয়ারী (মিসর), শায়েখ ক্বারী আহমদ শাকের নেযাদ (ইরান), শায়েখ ক্বারী আইয়ুব আসিফ (লন্ডন), শায়েখ ক্বারী সালমান আমিরুল্লাহ (ইন্দোনেশিয়া)।
বাংলাদেশী ক্বারীগণের মধ্যে ক্বিরাত পেশ করেন, হাফেয ক্বারী মো. আব্দুল হক, হাফেয ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী, হাফেয, ক্বারী মো. আনোয়ার হোসাইন, ক্বারী মো. গেলাম মোস্তফা, হাফেয ক্বারী আবুল হোসেন, হাফেয ক্বারী আবু রায়হান, হাফেয ক্বারী ইকবাল হোসেন ও কিশোর ক্বারী জাকারিয়া প্রমুখ।



 

Show all comments
  • মোঃ বেলায়েত হোসেন ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 0
    অবশ্যই নতুন দিগন্তের সূচনা করবে। বাংলাদেশ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হলেও আগে কখনও এই ধরনের আন্তর্জাতিক উল্লেখযোগ্য কিরাত সম্মেলনের আয়োজন করতে পারেনি। তাই এই ধরনের আয়োজনের শুরু করতে পারাটায় গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করি। এজন্য ধন্যবাদ ইকিলাব সম্পাদককে।
    Total Reply(0) Reply
  • সাদ বিন জাফর ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
    এই ধরনের মহতি উদ্যোগে আঞ্জাম দেওয়ার জন্য জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি ও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক, আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীনকে আন্তরিক মুবারকবাদ জানাচ্ছি।
    Total Reply(0) Reply
  • Fazlul Haque ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ। ইসলামি তাহজিব তামাদ্দুন রক্ষার মুখপত্র দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদকের খেদমত এদেশে ইসলামি মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখবে।
    Total Reply(0) Reply
  • হাশেম ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৩ এএম says : 0
    আল্লাহ তায়ালা এই কিরাত সম্মেলনকে কবুল করুন। এখন থেকে যাতে নিয়মিত প্রতিবছর আন্তর্জাতিকভাবে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় সেজন্য দোয়া করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • হাশেম ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
    যারাই এই মহতি উদ্যোগের পেছনে যাবতীয় আঞ্জাম দিয়েছেন তাদেরকে আল্লাহ তায়ালা কবুল করুন। আমরা চাই নিয়মিত এটা হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • শিহাব জুহুরি ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    ইনশায়াল্লাহ। কুরআন প্রেমীদের আল্লাহ কবুল করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • শিবলি নোমান ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    নতুন দিগন্তের সূচনায় ভূমিকা রাখায় আপনাদের প্রতি ভালোবাসা রইলো। একজন কুরআন প্রেমি এই ধরনের আয়োজন েস্বাগত না জানিয়ে পারে না।
    Total Reply(0) Reply
  • তাসলিমা বেগম ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
    শ্রদ্ধেয় সম্পাদকের সাথে একমত পোষণ করে বলতে চাই কিরাত সম্মেলন বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের মান ইনশায়াল্লাহ বৃদ্ধি করবে। এদেশে আল্লাহর রহমত বর্ষিত হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Shazzadul Islam Sahil ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
    মহান আল্লাহ তায়ালা নবীন-প্রবীণদের েএই মিলনমেলাকে কবুল করুন। কুরআনের আসরকে আলোকিত করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • ফজলুল হক ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
    মাওলানা এম. এ. মান্নান (রহঃ) যেভাবে এ দেশের ইসলাম, মুসলমান ও মাদ্রাসা শিক্ষার জন্য কাজ করে গেছেন ঠিক একইভাবে তার সুযোগ্য সন্তান এ এম এম বাহাউদ্দীন সাহেবেও কাজ করছেন। এজন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করি, এই পরিবার ও তাদের সকল কর্মকাণ্ডের প্রতি তিনি যেন রহমত ও বরকত দান করেন।
    Total Reply(0) Reply
  • এমদাদুল হক ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
    দৈনিক ইনকিলাবের মত অসংখ্য ভালো প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করায় দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীন সাহেবকে অসংখ্য ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply
  • লাভলু ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
    এদেশের সংখ্যাঘরিষ্ট মানুষ দেশ প্রেম ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী। আর এটাই সত্যিকার বাংলাদেশের বাস্তবতা। এই ধরনের আয়োজন আমাদের প্রাণের দাবি।
    Total Reply(0) Reply
  • Anwarul Hpque Anwar ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
    সময়োপযোগী বক্তব্য। মাননীয় সম্পাদক সাহেবকে অসংখ্য ধন্যবাদ আজকের অনুষ্ঠানে তাঁর সূ-চিন্তিত ও বাস্তবমুখী বক্তব্য রাখার জন্য।
    Total Reply(0) Reply
  • Milon ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৩ পিএম says : 0
    বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি ও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন সাহেবকে বলছি, যেহেতু আপনার বাবার মত আপনিও ইসলাম ও মুসলমাদের খেদমত করে যাচ্ছে, তাই এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সব সময় আপনাদের পাশে আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Sayeef Ali Khan ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৯ পিএম says : 0
    এই ভালো কাজগুলোর জন্য আল্লাহ আপনাদেরকে উত্তম পুরস্কার দান করুক।
    Total Reply(0) Reply
  • Ibrahim Khalil ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৪ পিএম says : 0
    আল্লাহর কাছে দোয়া করছি আল্লাহ যেন আপনাদের এই সকল কাজগুলোকে কবুল ও মঞ্জুর করে নেন।
    Total Reply(0) Reply
  • বুলবুল আহমেদ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৯ পিএম says : 0
    মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনে কাছে এই দোয়া করি যে, আল্লাহ যেন এ এম এম বাহাউদ্দীন সাহেবকে দীর্ঘ হায়াত দান করেন। যাতে তিনি তার বাবার মত দেশ, ইসলাম ও মাদ্রাসার জন্য কাজ করতে পারেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Kamrul Hasan ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৯ পিএম says : 0
    Bangladesh Jamiatul Mudarresin is a Unpolitical social organization, But it Works for Islam and Madrasah Education in Bangladesh.
    Total Reply(0) Reply
  • আবদুল আউয়াল ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৫৬ পিএম says : 0
    দেশ, ইসলাম ও শিক্ষার উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি ও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীন সাহেব যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে সেটা সত্যি প্রসংশার দাবিদার।
    Total Reply(0) Reply
  • Nasir Uddin ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:৫৭ পিএম says : 0
    aj jodi alem gon oikkoboddo thakto tahole desher 90 % manus tader pase thakto
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Noman ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:০১ পিএম says : 0
    বাহাউদ্দীন সাহেব এখানে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করেছেন। এই বিষয়গুলো নিয়ে এখন ভাববার সময় এসেছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এ এম এম বাহাউদ্দীন

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন