Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ভারতে বিক্রি হচ্ছে পাকিস্তানি পতাকা, সঙ্গে ফ্রি লাইটার

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

জওয়ান হত্যার ক্ষোভ কতদূর পৌঁছতে পারে, তার উদাহরণ মিলল মহারাষ্ট্রের পুনের ছোট্ট একটা বাজার। সেখানে দোকানের সামনে বিক্রি হচ্ছে পাকিস্তানি পতাকা। সেই পতাকার সাথেই বিক্রি হচ্ছে লাইটার। তাও বিনামূল্য। সেই লাইটার পেয়েই ক্রেতারা বুঝে যাচ্ছেন ঠিক কি ইঙ্গিত করতে চাইছেন দোকানদার। গিরিশ মুরুদকর জেন্দেওয়ালে এখনও পর্যন্ত এরকম ১০০টিরও বেশি পাকিস্তানি পতাকা ও লাইটার বিক্রি করে ফেলেছেন।
সকাল থেকেই পুনের রাস্তায় বেশ কয়েকটি পতাকা পোড়ানোর ঘটনা ঘটেছে। পুলওয়ামায় হামলার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন অসংখ্য মানুষ। কমপক্ষে ৪২ জন জওয়ান শহিদ হয়েছেন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দেশ জোড়া প্রতিবাদ দেখাচ্ছেন মানুষ। গিরিশ বলেন, সকাল থেকে ১০০রও বেশি পাক পতাকা বিক্রি হয়েছে। প্রত্যেকটা পতাকার সঙ্গে ১টা করে লাইটার বিনামূল্যে দিচ্ছি।
বৃহস্পতিবার দুপুরে কাশ্মীরের অবন্তীপুরায় সিআরপিএফ কনভয়কে লক্ষ্য করে হামলা হয়। মৃত্যু হয়েছে ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের। হামলার দায় স্বীকার করেছে পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ।
ভয়াবহ জঙ্গি হামলার কিছুক্ষণের মধ্যেই টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি লেখেন, ‘পুলওয়ামায় সিআরপিএফের উওর হামলা নিন্দনীয়। আমাদের সাহসী জওয়ানদের এই বলিদান ব্যর্থ হবে না। শহিদ পরিবারের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াবে গোটা দেশ।’ আহত জওয়ানদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন তিনি।
অন্যদিকে, জঙ্গি হামলার বদলা নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রীও। তিনিও তার টুইটে লিখেছেন, জঙ্গিদের উচিৎ শিক্ষা দেওয়া হবে। তাদের এই হামলার জন্য এমন শিক্ষা দেওয়া হবে, যা তারা ভুলতে পারবে না। একইসঙ্গে ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন তিনি। শহিদ জওয়ানদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর বার্তাও দিয়েছেন। সূত্র : কোলকাতা২৪।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন