Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০ হিজরী।

শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

চাটমোহর (পাবনা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

পাবনার চাটমোহরে বনভোজনে যেতে না চাওয়ায় এবং চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় প্রধান শিক্ষককে হুমকি, ভয়ভীতি দেখিয়ে অশালীন আচরণ করাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আশরাফুল ইসলামের বিরুদ্ধে। এর প্রতিকার চেয়ে ১৩ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ভুক্তভোগি প্রধান শিক্ষক মো. আবদুল কাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ ও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আশরাফুল ইসলাম ও সহকারী শিক্ষা অফিসার তামান্না ইসলানের নির্দেশে গুনাইগাছা ক্লাস্টারের প্রতিটি স্কুলের শিক্ষকদের নিয়ে বনভোজনে যাওয়ার জন্য ১৫ ফেব্রুয়ারী দিন ধার্য্য করেন কয়েকজন প্রধান শিক্ষক। এরজন্য গঠন করা হয় বনভোজন পরিচালনা কমিটি। বাধ্যতামুলক অংশগ্রহণের জন্য মৌখিক নির্দেশনা দেয়া হয়। মাথাপিছু চাঁদা নির্ধারণ করা হয় ১ হাজার টাকা। চাঁদা উত্তোলনের জন্য দায়িত্ব দেয়া হয় প্রধান শিক্ষক উজ্জল কুমার দত্ত ও দেল মাহমুদকে। এদিকে পারিবারিক কারণ দেখিয়ে পাইকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল কাদের বনভোজনে যেতে না চেয়ে চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানান। এরপর শিক্ষা অফিসার আশরাফুল ইসলাম গত ১১ ফেব্রুয়ারী তাকে (প্রধান শিক্ষক) ফোন দিয়ে বনভোজনে না গেলেও চাঁদা দিতে হবে বলে হুমকি দেন এবং ভয়ভীতি দেখানোসহ অশালীন আচরণ করেন বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, শিক্ষা অফিসার আশরাফুল ইসলাম স্কুলের রুটিন মেরামতের কাজের সময় ঘুষ নেয়া, ইনস্যুরেন্স করার জন্য চাপ প্রয়োগ এবং মোবাইলের মাধ্যমে অফিস ক্লার্ককে দিয়ে স্কুল ভিজিট করার অভিযোগে উল্লেখ করেন ওই প্রধান শিক্ষক। অভিযোগ প্রাপ্তির ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার জানান, ‘অভিযোগ পত্র এবং একটি অডিও ক্লিপ পেয়েছি। এর আগেও ডিসি স্যারের কাছে বেশ কয়েজন শিক্ষক তার (শিক্ষা অফিসার) বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ দিয়েছেন। সবগুলোর তদন্ত করা হবে। তদন্তে প্রমাণিত হলে বিভাগীয় শাস্তির জন্য সুপারিশ করা হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন