Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ০৭ চৈত্র ১৪২৫, ১৩ রজব ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহর

প্রিমিয়ার লিগের প্লেয়ার্স ড্রাফট আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

বিশ্বকাপের জন্য নিজেদের সতেজ রাখতে অনুরোধ জানিয়ে আগেই টুর্নামেন্ট থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। চোটের কারণে খেলার নিশ্চয়তা নেই সাকিব আল হাসানের। দেশের পাঁচ সিনিয়র ক্রিকেটারের বাকি দুই জন, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ পাচ্ছেন এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক। ‘এ প্লাস’ ক্যাটেগরিতে এই দুজনের পারিশ্রমিক ৩৫ লাখ টাকা।
আজ অনুষ্ঠিত হবে এবারের ঢাকা লিগের প্লেয়ার্স ড্রাফট। এর আগে সবশেষ মৌসুমের স্কোয়াড থেকে প্রতি দলের তিন জন করে ধরে রাখা ক্রিকেটারের তালিকা প্রকাশ করেছে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। গত আসরে রেকর্ড ৩৯ উইকেট নিয়ে শিরোপা জয়ে বড় অবদান রাখা মাশরাফিকে অনুমিতভাবেই ধরে রেখেছে আবাহনী লিমিটেড। চ্যাম্পিয়নরা ধরে রেখেছে ৭৪৯ রান করে গত লিগের সর্বোচ্চ স্কোরার নাজমুল হোসেন শান্তকেও। শিরোপা জয়ে নেতৃত্ব দেওয়া অধিনায়ক নাসির হোসেনকে অবশ্য ছেড়ে দিয়েছে আবাহনী, তবে ধরে রেখেছে আরেক অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেনকে।
মাহমুদউল্লাহকে ধরে রাখেনি তার আগের দল প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। মূল কারণ লিগের একটি বড় সময়ে পাওয়া যাবে না এই অলরাউন্ডারকে। নিউজিল্যান্ড সফর শেষে বিশ্রামে থাকার পর তাকে লিগে পাওয়া যাবে ৬ এপ্রিলের পর থেকে। একইভাবে মুস্তাফিজুর রহমানকেও পাওয়া যাবে ৬ এপ্রিলের পর। মূলত নিউজিল্যান্ড সফরের কারণে অনেকটা সময় পাওয়া যাবে না বলেই জাতীয় ক্রিকেটারদের অনেককে ধরে রাখেনি ক্লাবগুলি। ২২ মার্চ থেকেই খেলার জন্য পাওয়া যাবে বলে নিজেই জানিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ অবশ্য। তবে তাকেও ধরে রাখেনি তার আগের ক্লাব।
প্লেয়ার্স ড্রাফটে এবার রাখা হয়েছে সাতটি ক্যাটেগরি। প্রতিটি ক্যাটেগরির ভেতর আবার পারিশ্রমিকের তারতম্য রাখা হয়েছে অভিজ্ঞতা, পারফরম্যান্স ও চাহিদা অনুযায়ী। ‘এ প্লাস’ ক্যাটেগরিতে মাশরাফি ও মাহমুদউল্লাহর পারিশ্রমিক ৩৫ লাখ হলেও এনামুল হক পাবেন ২৬ লাখ, মিরাজ, মুস্তাফিজ, লিটন, ইমরুল ও রুবেল ২৫ লাখ, নাসির হোসেন পাবেন ২৩ লাখ টাকা।
আবার ‘এ’ ক্যাটেগরিতে থেকেও নাসিরের সমান ২৩ লাখ পারিশ্রমিক মুমিনুল হক, তাইজুল ইসলাম ও মোহাম্মদ মিঠুনের।
প্রিমিয়ার লিগে এবার নবাগত দুই দল উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব ও বিকেএসপির যেহেতু ধরে রাখার সুযোগ ছিল না, তারা ড্রাফটের আগেই তিন জন করে ক্রিকেটার বেছে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছে। উত্তরা তিনজনকেই নিয়েছে ‘এ’ ক্যাটেগরি থেকে ২০ লাখ পারিশ্রমিকে সাব্বির রহমান, সানজামুল ইসলাম ও নাজমুল ইসলাম অপুকে। বিকেএসপির বেছে নেওয়া তিন জন বর্তমানে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের তিন ক্রিকেটার আকবর আলি, শামিম হোসেন ও পারভেজ হোসেন। এই তিন জনের পারিশ্রমিক সাড়ে ৩ লাখ টাকা করে।
পহেলা মার্চ থেকে দেশের একমাত্র লিস্ট-এ টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে। তার আগে ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ক্লাবগুলো একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলে নিজেদের ঝালাই করবে।

ধরে রাখা ক্রিকেটার
আবাহনী লিমিটেড : মাশরাফি বিন মুর্তজা, মোসাদ্দেক হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্ত।
শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব : জিয়াউর রহমান, নুরুল হাসান সোহান, তানবীর হায়দার।
লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ : নাঈম ইসলাম, নাঈম শেখ, আসিফ হাসান।
প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব : ফরহাদ রেজা, মার্শাল আইয়ুব, আরাফাত সানি।
খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি : রবিউল ইসলাম রবি, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, তানভির ইসলাম।
গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স : ইমরুল কায়েস, মেহেদি হাসান, আবু হায়দার রনি।
মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব : রকিবুল হাসান, কাজি অনিক ইসলাম, ইরফান শুক্কুর।
প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব : আরিফুল হক, জাকির হাসান, মোহাম্মদ আল আমিন।
শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব : শুভাগত হোম, আফিফ হোসেন, তৌহিদ হৃদয়।
ব্রাদার্স ইউনিয়ন : জুনায়েদ সিদ্দিক, মিজানুর রহমান, ইয়াসির আলি চৌধুরী।
ড্রাফটের আগে নেওয়া
উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব : নাজমুল ইসলাম অপু, সাব্বির রহমান, সানজামুল ইসলাম।
বিকেএসপি : শামিম হোসেন, আকবর আলি, পারভেজ হোসেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন