Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

রিটের শুনানি ২৪ ফেব্রুয়ারি

বিজিবি-গ্রামবাসীর সংঘর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে তিন জন নিহত ও ২০ জন আহত হওয়ার ঘটনায় ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা রিটের শুনানি আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি। গতকাল রোববার রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ দিন নির্ধারণ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে প্রস্তুতি নেয়ার জন্য সময় আবেদন করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। রিটের পক্ষে শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন রিটকারী আইনজীবী তনয় কুমার সাহা। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে গরু জব্দ করা নিয়ে সংঘর্ষের মধ্যে বিজিবির গুলিতে নিহত ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জন্য ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট আবেদন ওই আইনজীবী।
বিজিবির অভিযানে নিরস্ত্র সাধারণ মানুষের উপর গুলি চালিয়ে তিন জনকে হত্যা এবং কমপক্ষে ২০ জনকে গুরুতর আহত করা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে রুল চাওয়া হয়েছে রিট আবেদনে। এছাড়া ওই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না এবং ওই অভিযানে জড়িত বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না- সেই প্রশ্নেও রুল চাওয়া হয়েছে। স্বারাষ্ট্র সচিব, বিজিবি মহাপরিচালক এবং ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তুহিন মো. মাসুদকে বিবাদী করা হয়েছে এই রিটে।
আবেদনে বলা হয়েছে, দেশের সীমান্ত রক্ষা ও সীমান্তের নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত বিজিবি সদস্যরা চোরাচালানের গরু উদ্ধারের নামে অত্যন্ত বেআইনিভাবে নিরস্ত্র গ্রামবাসীর উপর প্রকাশ্যে গুলি চালিয়েছে, যা সংবিধানসিদ্ধ মানুষের বেঁচে থাকার মত মৌলিক অধিকারকে লঙ্ঘন করেছে। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেয়ার পাশাপাশি এই পাশবিক অভিযানের সঙ্গে জড়িত বিজিবি কর্মকর্তাদের আইন অনুযায়ী দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।
প্রসঙ্গত, গত ১২ ফেব্রুয়ারি চোরাই গরু ঢুকেছে সন্দেহে বিজিবি সদস্যরা ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার বকুয়া ইউনিয়নের বহরমপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে কয়েকটি গরু জব্দ করে ট্রাকে তুললে গ্রামবাসীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে। বিজিবি সদস্যরা তখন গুলি চালালে দুই কৃষক এবং একজন এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হন। #



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজিবি


আরও
আরও পড়ুন