Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

মুশফিক-মিথুনকে নিয়ে শঙ্কা, আবার ডাক পড়েছে মুমিনুলের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:০০ পিএম

নিউজিল্যান্ড থেকে একের পর এক আসছে দুঃসংবাদ! তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুটি হেরে ইতোমধ্যে সিরিজ হার নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এবার ‘মরার উপর খাঁড়ার ঘা’ হয়ে এসেছে মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিঠুনের চোটের খবর। এজন্য আবার মুমিনুল হকের স্বরণাপন্ন হয়েছেন নির্বাচকরা।
এমনিতেই সাকিব আল হাসান চোটে পড়ায় বাংলাদেশ ওয়ানডে স্কোয়াড নেমে আসে ১৪ জনে। প্রথম দুই ওয়ানডেতে দলের বাইরে যে তিনজন ছিলেন, তিন জনই বোলার। তারা হলেন, দুই পেসার রুবেল হোসেন ও শফিউল ইসলাম এবং অফ স্পিনার নাঈম হাসান। তার মানে, ওয়ানডে স্কোয়াডে কোন ব্যাটিং বিকল্প রাখেননি নির্বাচকরা। মুশফিক ও মিথুনের চোটের কারণে তাই টেস্ট দলে থাকা মুমিনুলের দিকে হাত বাড়ালেন তারা।
দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ব্যাটিংয়ের সময় হ্যামস্ট্রিং চোট পেয়েছিলেন মিঠুন। অলৌকিক কিছু না হলে শেষ ওয়ানডেতে তার খেলা হচ্ছে না। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটটা মুটামুটি প্রথম পর্যায়েরর। এজন্য সপ্তাখানেক তাকে মাঠের বাইরে থাকা লাগতে পারে। মিঠুনের আশা, টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগে তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন।
মুশফিকও দ্বিতীয় ম্যাচ খেলার সময় পাঁজরের এক পাশে ব্যথা অনুভব করেছেন। ১০ ফেব্রুয়ারি অনুশীলনের সময় টানটা লাগে বলে মুশফিকের ধারণা। যদিও দুজনের কারোরই এখনো স্ক্যান করে চোটের চূড়ান্ত অবস্থা জানা যায়নি। সেটা আগামীকাল জানতে পারার কথা। তবে অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে বড় ধরণের সমস্যা না হলে মুশফিককে খেলানো হতে পারে। সেটা যে ব্যাটিং বিকল্প না থাকার কারণে তা বোঝাই যায়। মুমিনুলের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে খেলাও তাই এক প্রকার নিশ্চিত।
টেস্ট সিরিজের জন্য আগেই নিউজিল্যান্ডে পা রাখেন মুমিনুল। ক্রইস্টচার্চ থেকে এখন তাকে ডানেডিনে উড়িয়ে নেয়া হয়েছে। ডানেডিনের ইউনিভার্সিটি ওভালে ২০ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট

১৫ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন