Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫, ১৬ রজব ১৪৪০ হিজরী।

রিমান্ডে থাকা ‘জঙ্গি’ আসামির পালানোর চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:৩১ পিএম

রিমান্ডে থাকা সন্দেহভাজন এক জঙ্গি আসামি রাজধানীর মিন্টো রোড এলাকার কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হয়েছে। তার নাম শেখ গোলাম হোসেন ওরফে মিলাদ। সে নব্য জেএমবির একজন সদস্য জানিয়েছে পুলিশ। সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে সিটিটিসির ওই ভবন থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল নব্য জেএমবির ওই সদস্য।

কিন্তু লাফ দেয়ার পর জঙ্গি মিলাদ রাস্তায় না পড়ে ফুটপাতের ওপরে থাকা বিদ্যুতের তারের ওপর পড়ে সেখান থেকে রাস্তার পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় রাখা একটি প্রাইভেট কারের ছাদে পড়ে। সেখান থেকে ছিটকে ফুটপাতে পড়ে যায় যুবকটি।

এরপর সেখান থেকে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান ও ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, মিলাদ নামে ওই জঙ্গি রিমান্ডে ছিল। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছিল। আজ সকালে তাকে আদালতে পাঠানোর কথাও ছিল।

একপর্যায়ে সে দৌঁড়ে গিয়ে ছয় তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে। পুলিশ হেফাজত থেকে পালানোর চেষ্টার অভিযোগে ২২৪ ধারায় তার বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করা হবে আজ।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা বলেন, বাথরুমে গিয়েছিল মিলাদ। দু’জন কনস্টেবল সঙ্গে ছিল। তবে মিলাদ বাথরুম থেকে বেরিয়েই দৌঁড় দেন। দুই কনস্টেবল আটকানোর চেষ্টা করে। তাদের দুই হাত দিয়ে কিলঘুষি মেরে ভবনের মাঝ বরাবর ছয়তলার ফাঁকা বারান্দা দিয়ে লাফ দেন। আসলে সে আত্মহত্যাই করতে চেয়েছিল বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় বোমা হামলা ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের টার্গেট কিলিংয়ের মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর পরিকল্পনা করার সময় গত ১৫ই ফেব্রুয়ারি বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে ডেমরা মাতুয়াইল এলাকা থেকে নব্য জেএমবির দুই সক্রিয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। এরা হলেন- আলামিন (২৭) ও শেখ গোলাম হোসেন ওরফে মিলাদ (২৭)। পরদিন তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হলে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ