Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

৩ দিন পর চট্টগ্রামে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৪:২২ পিএম

চট্টগ্রামে ফুটো পাইপ লাইন মেরামত শেষে তিন দিন পর গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে। সোমবার মধ্যরাতে গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়ে মঙ্গলবার সকালের দিকে তা পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়। কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (কেজিডিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী খায়েজ আহম্মদ মজুমদার দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, সোমবার রাত ১টা নাগাদ মেরামত কাজ শেষ হয়। এরপর ধীরে ধীরে বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ স্বাভাবিক হতে শুরু করে। সকালে মোটামুটি সব বাসাতেই গ্যাসের চাপ স্বাভাবিক ছিল বলে জানান তিনি।
নগরীর আকমল আলী রোডের মাইট্টাল্ল্যা খাল খননের সময় শনিবার বিকেলে ২৪ ইঞ্চি ব্যাসের গ্যাস সরবরাহ লাইনে প্রায় দুই ইঞ্চি পরিমাণ ফুটো হয়ে যায়। ফলে চট্টগ্রাম ইপিজেড, কর্ণফুলী ইপিজেড, বেসরকারি বিদ্যুৎকেন্দ্র ইউনাইটেড পাওয়ার, হালিশহর, পতেঙ্গা, বন্দর, আগ্রাবাদ পুরো এলাকা, সদরঘাট, ফিরিঙ্গী বাজার, আন্দরকিল্লা, জামাল খান, চেরাগী পাহাড়সহ নগরীর বিভিন্ন অংশে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।
গ্যাস না থাকায় এসব এলাকার বাসিন্দাদের পড়তে হয় ভোগান্তিতে। এ সময়ে কল-কারখানার উৎপাদনও থমকে যায়। কেজিডিসিএল কর্তৃপক্ষের হিসাব অনুযায়ী, চট্টগ্রামে গৃহস্থালীর কাজে প্রতিদিন গড়ে ৬০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস প্রয়োজন হয়। এছাড়া শিল্প, সার কারখানা ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে প্রতিদিন বন্দরনগরীতে গ্যাসের চাহিদা গড়ে ৩৩০ মিলিয়ন ঘনফুট। #



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্যাস সরবরাহ


আরও
আরও পড়ুন