Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

চেলসির ‘বিভ্রান্তমূলক’ ফুটবল

প্রতিশোধ নিয়ে এফএ কাপের শেষ আটে ম্যান ইউ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

এফএ কাপের গত আসরের ফাইনালে হতাশায় পুড়তে হয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। পুরনো সে প্রতিপক্ষ চেলসিকে তাদেরই মাঠে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে ওলে গুনার সুলশারের দল। ঘরের মাঠে শিষ্যদের পারফর্মান্সকে ‘বিভ্রান্তমূলক’ আখ্যা দিয়েছেন চেলসি কোচ মাউরিসিও সারি।

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে শিরোপাধারীদের ২-০ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে ইউনাইটেড। সফরকারীদের হয়ে প্রথমার্ধে গোল দুটি করেন আন্দের হেরেইরা ও পল পগবা। দুটি গোলই আসে দুর্দান্ত দুই হেড থেকে। শেষ আটে তাদের প্রতিপক্ষ উলভারহাম্পটন ওনডারার্স।
সুলশারের অধীনে প্রথম হারের পরের ম্যাচেই দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে রেড ডেভিলরা। গত মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ঘরের মাঠে পিএসজির কাছে ২-০ গোলে হেরেছিল ম্যান ইউ। দ্বাদশ ম্যাচে এসে প্রথম হারের স্বাদ পান নরওয়েরিয়ান কোচ। সেই ধাক্কা সামলে জেসে লিঙ্গার্ড ও অ্যান্থনি মার্শিয়ালের অনুপস্থিতিতে পুরো ম্যাচেই দারুণ খেলে সমর্থকদের মন জয় করেছেন সুলশার। ম্যাচ নিয়ে ওল্ড ট্রাফোর্ডের আপৎকালীন কোচের মূল্যায়ন, ‘পারফর্মান্স অসাধারণ ছিল, আমাদের কৌশল কাজে লেগেছে।’

সোমবার রাতে বল দখলে মাউরিসিও সারির শিষ্যরা এগিয়ে থাকলেও ভয়ঙ্কর সব আক্রমণ শানিয়েছে সুলশারের শিষ্যরাই। ম্যাচের ৩১তম মিনিটে তেমনি এক আক্রমণ থেকে দলকে এগিয়ে নেন হেরেইরা। বাম প্রান্ত থেকে পগবার মাপা ক্রস খুঁজে নেয় হেরেইরাকে। দারুণ হেডে দলকে এগিয়ে নিতে ভুল করেননি স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। ৪৫ মিনিটে গোলদাতার ভূমিকায় আবির্ভুত হন পগবা নিজে। এবার ডান প্রান্ত থেকে মার্কাস রাশফোর্ডের ক্রস খুঁজে নেয় পগবার মাথা। বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি মিডফিল্ডার ডাইভ হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। সব প্রতিযোগিতা মিলে মৌসুমে এটি তার ১৪তম গোল।

দ্বিতীয়ার্ধে বøুজদের ঘুরে দাঁড়ানোর প্রচেষ্টা কাজে লাগেনি। লিগে শেষ চার ম্যাচের তিনটিতে পরাজয়ের পর এবার ঘরের মাঠে হেরে এফএ কাপ থেকেও বিদায়; দলের এমন করুণ দশা মেনে নিতে পারছেন না সমর্থকরা। স্বাগতিক সমর্থকরা এদিন সারির বিপরীতে অবস্থায় নিয়ে নানান ধরণের দুয়ো দিতে থাকে। এমনকি ‘সকালেই তুমি ছাঁটাই হতে যাচ্ছো’ বলে দুয়োধ্বনি দেয় তারা। একই সঙ্গে কোচ হিসেবে ফ্রাঙ্ক ল্যাম্ফার্ডের নাম ভেসে আসে দর্শক সারি থেকে।

সারি অবশ্য দর্শকদের প্রতিক্রিয়াকে পাত্তা দিচ্ছেন না, ‘আমি ম্যাচের ফল নিয়ে চিন্তিত, ভক্তদের প্রতিক্রিয়া নিয়ে নয় কারণ, আমি পরিস্থিতিটা বুঝতে পারছি।’ তার দল ‘বিভ্রান্তমূলক’ ফুটবল খেলেছে বলেও মন্তব্য করেন ইতালির সাবেক নাপোলি কোচ, ‘দ্বিতীয়ার্ধে আমরা বিভ্রান্তমূলক ফুটবল খেলেছি তবে প্রথমার্ধে আমা ভালো খেলেছি।’ তবে চাকরি নিয়ে কোন চিন্তা করছেন না ৬০ বছর বয়সী, ‘আমি চিন্তিত ছিলাম ইতালিতে যখন দুই নম্বর দল ছিলাম, এখন নই।’

আসছে রোববার লিগ কাপের ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির মুখোমুখি হওয়ার আগে এই হার চেলসিকে আরও চাপে ফেলে দিল। বিশেষ করে কোচ সারির জন্য ম্যাচটি হয়ে উঠেছে আরো কঠিন। একই কারণে ওয়েম্বলির ম্যাচটি হতে পারে সারির জন্য নিজেকে নতুনভাবে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার উপলক্ষও।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন