Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০ হিজরী।

দোষী সাব্যস্ত অনিল অম্বানী, টাকা না দিলে জেল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৩:৪১ পিএম

আদালত অবমাননার দায়ে অনিল অম্বানীকে দোষী সাব্যস্ত করল ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। শুধু তাই নয়, চার সপ্তাহের মধ্যে এরিকসনকে সাড়ে চারশো কোটি টাকা মিটিয়ে না দিলে জেল খাটতে হবে বলেও অনিলকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে শীর্ষ আদালত।
তাদের প্রাপ্য টাকা মেটাচ্ছে না অনিল অম্বানীর সংস্থা। এই অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে সুইডিশ টেলিকম সংস্থা এরিকসন। বুধবার মামলার শুনানি শুরু হলে আদালত বলে, তাদের নির্দেশকে ‘ইচ্ছাকৃত ভাবে অমান্য’ করেছেন অনিল অম্বানী। আর এই অবমাননার জন্য অনিলকে এক কোটি জরিমানাও করে আদালত।
এরিকসনের আরও অভিযোগ, রাফাল প্রকল্পের জন্য অনিলের সংস্থা টাকা বিনিয়োগ করতে পারছে, অথচ তাদের বকেয়া ৫৫০ কোটি টাকা দিচ্ছে না। যদিও এরিকসনের এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে অনিলের সংস্থা। আদালতকে অনিল অম্বানী জানিয়েছেন, এরিকসনের বকেয়া মেটানোর জন্য তারা সর্বোত ভাবে চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সম্পত্তি বিক্রি নিয়ে তার বড় ভাই মুকেশ অম্বানীর সংস্থা রিলায়্যান্স জিও-র সঙ্গে যে চুক্তি হয়েছিল তা ব্যর্থ হওয়ায় সমস্যায় পড়েছে তার সংস্থা।
২০১৮-র ২৩ অক্টোবর আদালত রিলায়্যান্স কমিউনিকেশন-কে নির্দেশ দিয়েছিল ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে এরিকসনের সমস্ত বকেয়া মিটিয়ে দিতে হবে। পাশাপাশি এটাও বলেছিল, বকেয়া মেটাতে দেরি হলে বছরে ১২ শতাংশ সুদও দিতে হবে তাদের। কিন্তু ২৩ অক্টোবরের সেই নির্দেশ অনুযায়ী সময় মতো টাকা মেটাতে পারেনি অনিলের সংস্থা। ফলে সুদ সমেত ৫৫০ কোটি টাকা মেটানোর জন্য অনিল অম্বানীকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২১ মার্চ, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন