Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

চুড়ান্ত পর্বে খেলার লক্ষ্য মেয়েদের

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭:৪৬ পিএম | আপডেট : ৭:৫৬ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের চুড়ান্ত পর্বে খেলাই বাংলাদেশের মেয়েদের লক্ষ্য। লক্ষ্যপূরণে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্ব খেলতে শুক্রবার দিবাগত রাতে মায়ানমারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ মহিলা ফুটবল দল। ৪১ সদস্যের এ দলটিতে আছেন জাতীয় দলের ১১ ফুটবলার। বাকি ৩০জন অনূর্ধ্ব-১৬ দলেরই খেলোয়াড়। আসন্ন সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখেই সিনিয়র খেলোয়াড়দের অনূর্ধ্ব-১৬ দলের সঙ্গে মায়ানমার পাঠানো হচ্ছে। সবাই এক সঙ্গে যাতে অনুশীলন করতে পারে, সেজন্যই এ ব্যবস্থা। বুধবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানানো হয়।

গত বছর ঢাকায় অনুষ্ঠিত এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম পর্বে চ্যম্পিয়ন হয়েছিল লাল-সবুজের মেয়েরা। বিভিন্ন দেশে ঘুরে এই রাউন্ড থেকে ছয়টি চ্যাম্পিয়ন ও দু’টি রানার্সআপ দল খেলবে দ্বিতীয় পর্বে। এই পর্বে বাংলাদেশের গ্রুপে আছে চীন, ফিলিপাইন ও স্বাগতিক মায়ানমার। এই গ্রুপের সেরা দুই দল আগামী বছর থাইল্যান্ডে চুড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পাবে।

বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনের চোখ থাইল্যান্ডে। তিনি বলেন, ‘আমরা দ্বিতীয়বারের মতো থাইল্যান্ডে চুড়ান্ত পর্ব খেলতে চাই।’

চীন খুবই শক্তিশালী দল। মহিলা ফুটবলে স্বাগতিক মায়ানমারও শক্তিশালী। তাই চীন ও মায়ানমারকে টপকে গ্রুপের সেরা দুইয়ে থাকার চ্যালেঞ্জটা নিলেন ছোটন। তিনি বলেন, ‘আমাদের মেয়েরা দেড় বছরের বেশি সময়ে অনুশীলনে রয়েছে। আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে অনেক। চীনের সঙ্গে খেলা পরে। তাই আমরা প্রথম দু’ম্যাচের জয় নিয়েই ভাবছি আগে।’ অনুর্ধ্ব-১৬ দলের অধিনায়ক মারিয়া মান্ডাও কোচের কথায় সুর মেলালেন, ‘আমরা আবার থাইল্যান্ডে খেলতে চাই। মূল পর্বে খেলার জন্য আমরা প্রস্তুত।’

দু’মাস মাস আগে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দল টোকিও অলিম্পিক ফুটবলের বাছাই পর্ব খেলতে মায়ানমার গিয়েছিল। সেই সফরে ভালো করতে পারেননি আঁখি-মারিয়ারা। এবার সেই ব্যর্থতা ঘুচাতে চান আখি। তার কথা,‘সেটা ছিল জাতীয় দল আর এটা বয়সভিত্তিক। তবে আমরা এই আসরে ভালো করতে পারব। মায়ানমারে খেলার অভিজ্ঞতা আমাদের কিছুটা এগিয়ে রাখবে।’ মায়ানমার যাওয়ার আগে নিজেদের মধ্যেই প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে এই দলটি। অনুর্ধ্ব-১৬ দলের অন্যতম ফুটবলার সাজেদা সফরসঙ্গী হতে পারছেন মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য।

বাংলাদেশ দল- মাহমুদা আক্তার, রুপ্না চাকমা, ইয়াসমিন আক্তার, আখি খাতুন, নাজমা, আনাই মুঘিনি, নিলুফা ইয়াসমিন নীলা, ঋতু পর্ণা চাকমা, মারিয়া মান্ডা, মনিকা চাকমা, মনি আক্তার, লাবণী আক্তার, সোহাগী কিসকু, লামনী, সুলতানা, অনুচিং মুঘিনি, জাহান, রেহানা আক্তার, শাহিদা আক্তার রিপা, শামসুননাহার, তহুরা খাতুন, শামসুন্নাহার ও রোজিনা আক্তার।

 

বাংলাদেশের ম্যাচগুলো

২৭ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ ও ফিলিপাইন

১ মার্চ বাংলাদেশ ও মায়ানমার

৩ মার্চ বাংলাদেশ ও চীন

(মায়ানমারের মানডালার থিরি স্টেডিয়ামে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে)



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন