Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

মোবাইলে ফোন দিলে মর্গের লোক ধরেছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৬:৫০ পিএম

রাত ১০টার পর মোবাইলে ফোন দিয়েই যাচ্ছি কেউ ধরেনি। সকাল ৮টার সময় একজন ফোন ধরে বললো মর্গে আসেন। কাঁদতে কাঁদতে বলছিলেন কাজী এনামুল হকের বড় ভাই কাজী আমির হোসেন।
ঢাকা সিটি কলেজের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এনামুল হক (২৮) গত বুধবার রাত ১০টার সময় দাঁতের চিকিৎসকের চেম্বারে গিয়েছিলেন। সেখানেই এনামুল ও চিকিৎসকসহ উপস্থিত সকলেই আগুনে পুড়ে প্রাণ হারান।
আমির হোসেন বলেন, পুরান ঢাকায় আগুন লাগার খবর পাওয়ার পর থেকে এনামুলের মোবাইলে ফোন দিয়ে যাচ্ছি। কেউ ফোন ধরেনি। সারারাত চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি। রাতে ফোন না ধরলেও সকালবেলা কল করার পর একজন ফোন ধরে বলেন, মর্গে আসেন, মরদেহ সনাক্ত করে নিয়ে যান।
পটুয়াখালীরর মির্জাগঞ্জ থানার রামপুর গ্রামের কাজী মতলেবের ছোট ছেলে কাজী এনামুল হক। তিনি রাজধানীর সিটি কলেজে এমবিএ করছেন। চকবাজারের একটি মেসে থেকে লেখাপড়া করতেন। লেখাপড়া করে বড় হওয়ার সেই স্বপ্ন তার আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চকবাজার ট্র্যাজেডি

৭ মার্চ, ২০১৯
২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন