Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ০২ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামে মেহনতি পশুর অধিকার

মুহাম্মদ মনজুর হোসেন খান | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

শেষ

পশুর প্রতি লানত বর্ষণ করা নিষেধ ঃ মানুষকে যেভাবে গালি দেয়া, লানত করা নিষেধ তেমনিভাবে পশুকে গালি দেয়াও লানত করা নিষেধ। একবার রসূল স. শুনতে পেলেন কে যেন একটি পশুকে লানত করছে। রসূল স. জিজ্ঞেস করলেন কে পশুকে লানত করেছে? লোকেরা বলল, একজন মহিলা তাকে বহনকারী পশুকে লানত করছে, নবীজী স. শুনে বললেন, বাহনের উপর থেকে হাওদা নামিয়ে দাও, সে তো নিজেই লানতের কাজ করেছে। কুরআন ও হাদীসের আলোকে ইমামগণ ইসলামী রাষ্ট্র পরিচালকদের জন্য পশুর ব্যাপারে কয়েকটি নীতিমালা বর্ণনা করেছেন। হযরত আবু হানিফা র. বলেছেন, রাষ্ট্রের ন্যায়ের আদেশ ও অন্যায়ের প্রতিবিধানের মধ্যে মালিককে পশুর খাদ্যের ব্যবস্থা করা, পশুর আরামের ব্যবস্থা গ্রহণ ও জুলুম না করার নির্দেশ জারী করাও জরুরী। ইমাম মালেক র. ইমাম শাফেয়ী র. ইমাম আহমদ ইবন হাম্বল র. এর সম্মিলিত মত হচ্ছে- ইমাম মালেক ও ইমাম আহমদ র.এর অভিমত হলো, যদি কেউ পশুর সাধ্যের অতিরিক্ত কাজ নেয় অথবা তার ওপর বোঝা চাপায় তাহলে রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষ তাকে বিরত রাখবে। (ইসলামের খেটে খাওয়া মানুষের আইন)
ইসলাম একটি পরিপূর্ণ জীবন বিধান। এর মধ্যে মানুষের দোলনা থেকে মৃত্যু পর্যন্ত এবং কবরের জীবন থেকে হাশরের জীবন তারপর জান্নাত ও জাহান্নাম আসমান ও জমিন, তার মধ্যে যা কিছু আছে সকল বিষয় ইসলামের নিকট সুস্পষ্ট রয়েছে। তাই পশুর বিষয়টিও বাকী রাখা হয় নি। পশুর অধিকার আদায় ও পশুর খাদ্যের ব্যবস্থা গ্রহণ, বাসস্থান ও আরাম আয়েশের বিষয়টি ইসলামি আইনে গুরুত্ব লাভ করেছে এবং রসূল স. পশুর ব্যাপারে আল্লাহকে ভয় করতে বলেছেন। পশুর অধিকার ও যতে্নর ব্যাপারে যদি এত তাকিদ প্রদান করা হয়ে থাকে তাহলে অধীনস্থ শ্রমজীবী মানুষের অধিকারের বিষয়টি কত গুরুত্বপূর্ণ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আজকের বিশ্বে শ্রমজীবী মানুষ অবহেলিত, ঘৃণিত, লাঞ্ছিত, অত্যাচারিত, নিপীড়িতও নির্যাতিত। শ্রমজীবী মানুষ যদি তাদের অধিকার লাভ করতে চায় তাহলে ইসলামী বিধানের কাছে তাদের ফিরে আসতে হবে। অন্যথায় মানব রচিত বিধান শ্রমজীবী মানুষের শোষণের হাতিয়ার। ইসলাম যদি পশুর জীবনের শান্তি নিশ্চিত করতে পারে তাহলে শ্রমজীবী মানুষের জীবনের সুখ শান্তি কি নিশ্চিত করতে পারবে না? যারা বলে ইসলাম শ্রমজীবী মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে পারে নি তারা আসলে ইসলামের দুশমন এবং শ্রমজীবী মানুষেরও দুশমন। তারা শ্রমজীবী মানুষকে বিভ্রান্ত করে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌছাতে চায়। যে ইসলাম পশুর অধিকার দেয় পরিপূর্ণভাবে যে ইসলামই শ্রমজীবী মানুষের অধিকার একশত ভাগই নিশ্চিত করেছে এবং তারই মধ্যে রয়েছে শ্রমজীবী মানুষের মুক্তির পথ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন