Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

দক্ষিনাঞ্চলে বিরূপ আবহাওয়া

নাছিম উল আলম | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৪:৩৯ পিএম

দক্ষিনাঞ্চলে এবার সাম্প্রতিককালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সত্বেও আগেভাগে শীত বিদায় নিয়ে এখন শেষ রাত থেকে মাঝারী ও ঘন কুয়াশার সাথে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পারদ স্বাভাবিকের যথেষ্ঠ ওপরে। ফলে জনস্বাস্থ্য সহ মওশুমী ফল ও রবি ফসলের ওপর নানা ধরনের বিরূপ প্রভাব পড়ছে। সাম্প্রতিককালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় এবার দক্ষিনাঞ্চলে রেকর্ড সংখ্যক শিশুর মৃত্যু ঘটেছে ঠান্ডাজনিত নানা রোগে। এদের বেশীরভাগই বিভিন্ন সরকারী হাসপাতালেই মারা গেছে। কয়েক দফার শৈত্য প্রবাহে বোরো বীজতলা ‘কোল্ড ইনজুরী’র কবলে পড়ে। এখন শেষ রাতের ঘন কুয়াশায় আম ও লিচু সহ বিভিন্ন মৌশুমী ফলের মুকুল ঝড়ে যাচ্ছে। গত ২৯ডিসেম্বর বরিশালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৬.৫ডিগ্রী সেলসিয়াস। যা ছিল সাম্প্রতিককালের সর্বনিম্ন। 

কয়েক দফার মাঝারী থেকে এক দফা তীব্র শৈত্য প্রবাহে বোরো বীজতলা সহ বিভিন্ন রবি ফসলের গুনগত মান বিনষ্ট হয়েছে। এমনকি শাক সবজির ওপরও যথেষ্ট বিরূপ প্রভাব পড়ে।
কিন্তু মাঘের কনকনে শীতের মৌশুমের শুরু থেকেই দক্ষিনাঞ্চল যুড়ে বসন্তের আমেজ সৃষ্টি হয়। তাপমাত্রার পারদ স্বাভাবিকের চেয়ে ৩Ñ৫ডিগ্রী সেলসিয়াস ওপরে ছিল। গত সপ্তাহখানেক ধরে আবার শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশায় দিগন্ত ঢেকে যাচ্ছে। ব্যাহত হচ্ছে সড়ক,নৌ ও আকাশ যোগাযোগ। অথচ দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের ওপরে থাকছে। আবহাওয়া বিভাগের মতে, চলতি মাসে বরিশাল অঞ্চলে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন স্বাভাবিক তাপমাত্রা থাকার কথা যথাক্রমে ২৯ ডিগ্রী ও ১৪.৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস। কিন্তু ইতোমধ্যে বরিশালে তাপমাত্রার পারদ ৩০ডিগ্রী এবং পটুয়াখালীতে ৩১ডিগ্রীর ওপরে উঠে যাচ্ছে। দিনের বেলা হালকা মেঘেও ঢেকে যাচ্ছে দক্ষিনাঞ্চলের আকাশ। বৃহস্পতিবার বরিশালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০ডিগ্রী সেলসিয়াস। শুক্রবার বরিশালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০.৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস। অথচ এসময়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকার ১৫ডিগ্রীর নিচে। বৃহস্পতিবার দিনভরই দক্ষিনাঞ্চলের আকাশ হালকা মেঘে ঢেকে ছিল। এরই মধ্যে কয়েক দফা মেঘের হালকা গর্জন শোনা গেলেও কোন বৃষ্টি হয়নি।
আবহাওয়া বিভাগের মতে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিম বঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বিস্তৃত রয়েছে। মৌশুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে অস্থায়ী আংশিক মেঘলা সহ দক্ষিনাঞ্চল ছাড়াও সারোদেশের আবআওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকার কথা বলা হয়েছে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারী কুয়াশা পড়ারও কথাও জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। পাশাপাশি রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত ও দিনের তাপমাত্রা বাড়তে পারে বলেও জানান হয়েছে। শুক্রবার সকালের পরবর্তি ৪৮ ঘন্টার শেষ দিকে বৃষ্টি সহ বজ্র বৃষ্টির সম্ভবনার কথাও বলা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ