Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ০২ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

পুলিশের সহায়তায় ১০ বছর পর পরিবারের কাছে ফিরলো ইয়াছমিন

ভোলা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:২৭ এএম | আপডেট : ১২:০৭ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

প্রায় ১০ বছর পর ভোলার লালমোহন থানা পুলিশের সহায়তায় পরিবারের কাছে ফিরলো ইয়াছমিন বেগম (১৭) নামের এক তরুণী। শুক্রবার বিকালে ওই তরুণীকে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করেন লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবীর ও এসআই মাহাবুব। ইয়াছমিন উপজেলার চরভূতা ইউনিয়নের গোয়ালখালী জনু সর্দার বাড়ির আলমগীরের মেয়ে।
তরুণীর মা ইয়ানূর বলেন, পরিবারের অভাব অনটনের কারণে ২০০৯ সালে ঢাকার মোহাম্মদপুরে এক বাসায় কাজ করতে দেই মেয়েকে। সেখান থেকে হঠাৎ করে হারিয়ে যায় ইয়াছমিন। অনেক খোজাঁখুজি করেও দীর্ঘ ১০ বছর ধরে তার কোনো খোঁজ পাইনি। শুক্রবার সকালে জানতে পারি লালমোহন থানায় একজন হারানো মেয়েকে রাখা হয়েছে। খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে দেখতে পাই, ওই মেয়ে আমার ১০ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া ইয়াছমিন। পুলিশ এভাবে আমার মেয়েকে ফিরে পেতে সহযোগিতায় করায় তাদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।
এব্যাপারে লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবীর বলেন, রংপুর থেকে হঠাৎ একটি ফোন আসে আমার কাছে। সেখান থেকে জানানো হয় লালমোহনের একজন মেয়ে তাদের কাছে রয়েছে। পরে তারা ইয়াছমিনকে লালমোহন থানায় পাঠিয়ে দেয়। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) সকালে ইয়াছমিন লালমোহন থানায় আসে। তখন থেকে ইয়াছমিনকে পুলিশী হেফাজতে রাখা হয়। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে অনেক চেষ্টার পর শুক্রবার সকালে ইয়াছমিনের পরিবারের সন্ধান পাওয়া যায়। পরে বিকালে তার মায়ের কাছে ইয়াছমিনকে হস্তান্তর করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ