Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ০৮ চৈত্র ১৪২৫, ১৪ রজব ১৪৪০ হিজরী।

গুজব-ভুয়া খবর ছড়ানোয় শীর্ষে ভারত: মাইক্রোসফট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৯:২৮ পিএম | আপডেট : ১২:০৯ এএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

সাধারণ নির্বাচনের আগে ভারতে উদ্বেগ বাড়াল ‘ইন্টারনেটের বিপদ’ সংক্রান্ত মাইক্রোসফটের এক রিপোর্ট। এ মাসেই প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, তিনটি বিষয়ে পৃথিবীতে সবার থেকে এগিয়ে ভারত। এগুলো হলো— সাধারণ মানুষের ওপর নজরদারি, ভুয়া খবর এবং গুজব ছড়ানো।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, পাশাপাশি নিজের বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকেই অনেক বেশি ক্ষতির মুখোমুখি হন ভারতীয়েরা।

হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপে কিডনি পাচার, কখনো নিছক সন্দেহের বশে গুজব ছড়ানোকে কেন্দ্র করে গত এক বছরে ভারতে ৪০ নিরপরাধ ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন।

মাইক্রোসফটের রিপোর্টও বলছে, ভারতের ৫৪ শতাংশ মানুষই গুজবের শিকার। সারা পৃথিবীর ক্ষেত্রে এই সংখ্যা ৫০ শতাংশ। ভারতের মতো গুজব এখন সারা পৃথিবীর কাছেই উদ্বেগজনক বলে দাবি করেছে মাইক্রোসফট।

গুজবের পাশাপাশি ভুয়া খবর ছড়ানোতেও এখন শীর্ষে ভারত। ভারতে বেশ কিছুদিন ধরেই নিজের মতাদর্শ প্রতিষ্ঠা করতে ভুল খবর, ছবি এবং ভিডিও তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিচ্ছে বিভিন্ন গোষ্ঠী।

মাইক্রোসফটের রিপোর্ট অনুয়ায়ী, সারা পৃথিবীর মধ্যে ভারতেই সব থেকে বেশি ভুয়া খবর ছড়ানো হয়। সারা পৃথিবীতে ৫৭ শতাংশ মানুষ ভুয়া খবরের শিকার, সেখানে ভারতের ক্ষেত্রে এই সংখ্যা ৬৪।

গুজব এবং ভুয়া খবরের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের তথ্য চুরি এবং তাদের ওপর নজরদারিতেও সারা পৃথিবীর থেকে অনেক এগিয়ে ভারত। দেশটিতে ৪২ শতাংশ মানুষের ওপর কোনো না কোনোভাবে নজরদারি চালানো হয়, সেখানে পৃথিবীর ক্ষেত্রে ২৯ শতাংশ মানুষ এই নজরদারির শিকার।

পাশাপাশি কারও নামে ভুল খবর তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রেও ভারতের পরিসংখ্যান খুবই উদ্বেগজনক। ভারতের ক্ষেত্রে এই বিপদের মুখোমুখি হন ৩১ শতাংশ মানুষ। পৃথিবীতে ক্ষেত্রে এই সংখ্যা ২২।



 

Show all comments
  • Sharif ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:০৪ এএম says : 0
    I agree 100%
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন