Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৯ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মশা নিয়ন্ত্রণে রাজশাহীতে ক্রাশ প্রোগ্রাম

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

‘আসুন আমরা সবাই মিলে সবুজ, পরিচ্ছন্ন, পরিবেশবান্ধব ও বসবাসযোগ্য নগরী গড়ি’ স্লোগানকে সামনে রেখে নগরী পরিচ্ছন্নকরণ ও মশা নিয়ন্ত্রণে ১৫ দিনব্যাপী বিশেষ ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। গতকাল সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে পরিচ্ছন্নকরণ ও মশা নিয়ন্ত্রণে ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধনের মাধ্যমে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধীন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, অনেকেই নিজ বাড়ির পাশে ঝোঁপঝাড়, ড্রেন, নালা কোনো কিছুই পরিস্কার করেন না। নাগরিকদের এই অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে। বাড়ি ও আশপাশের সব কিছু পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। শুধু ড্রেন পরিস্কার রাখলে হবে না, আমাদের মনকেও পরিস্কার রাখতে হবে। মন যদি পরিস্কার না হয়, আমরা যদি সচেতন না হই, তাহলে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়া কঠিন হবে।

পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব শহরকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা। এই দায়িত্বের অংশ হিসেবে আমরা আজ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসেছি। আমরা মূল কাজ করা করে দিবো। তবে এটা ধরে রাখার দায়িত্ব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

তিনি বলেন, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে অবৈধভাবে যানবাহন রেখে, দোকান তৈরি করে তীব্র যানজটের সৃষ্টি করা হচ্ছে। এতে নাগরিকদের দুর্ভোগ হচ্ছে। এ ব্যাপারে আমাদের যে করণীয় আছে, তা করতে চাই। একাজে কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন।

মেয়র লিটন বলেন, মশা দ্রুত সময়ে ব্যাপকভাবে বংশ বিস্তার করবে। এটাকে আমরা নির্মুল করতে পারি না। তবে আমরা নিন্ত্রয়ণ করবো। নিন্ত্রয়ণের কাজটি প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি সরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনালের জামিলুর রহমান, মহানগর পুলিশ কমিশনার একেএম হাফিজ আক্তার, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ ডা. নওসাদ আলী প্রমুখ।


এ সময় প্যানেল মেয়র-২ ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, কাউন্সিলর কামাল হোসেন, কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমনসহ অন্যান্য কাউন্সিলরবৃন্দ, প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মো. মামুন ডলারসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ