Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

উপজেলায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার হিড়িক

পঞ্চম উপজেলা ভোট ১০ মার্চ

পঞ্চায়েত হাবিব | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:২৩ এএম

উপজেলা নির্বাচনের পাঁচ ধাপের মধ্যে প্রথম দুই ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন প্রায় অর্ধশতাধিক প্রার্থী। প্রথম ধাপের ভোট হবে আগামী ১০ র্মাচ। প্রথম ধাপের ৮৬ উপজেলার মধ্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ভোটের পরই সবার ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করবে ইসি। 

এদিকে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার রেকর্ড হতে যাচ্ছে সরকারি দল আওয়ামী লীগ। এর আগে কোন উপজেলা নির্বাচনে দুই ধাপে এত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হননি বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
ইসির সহকারী সচিব আশফাকুর রহমান ইনকিলাবকে বলেন, প্রথম ধাপে এ পর্যন্ত ১০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার তথ্য সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার পাঠিয়েছেন। এরমধ্যে চেয়ারম্যান ৮জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৫ জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান রয়েছেন ৭ জন। পঞ্চগড়ের বোদা, নীলফামারী সদর, জয়পুরহাট সদর এবং জামালপুরের সদর উপজেলা, সরিষাবাড়ি, মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ উপজেলায় একক প্রার্থী হওয়ায় চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। দ্বিতীয় ধাপে ২৫ জন একক প্রার্থী দিয়েছেন। বাছাই শেষে ২৭ ফেব্রুয়ারির প্রত্যাহরের পর আরও প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতর সংখ্যা বাড়বে। ফলে দুই ধাপ মিলে অর্ধশতর উপরে প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন।
উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের ৮৬ উপজেলার মধ্যে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। ভাইস চেয়ারম্যানরা হচ্ছেন, জামালপুরের,সবিষাবাড়ি, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া ও শাহজাদপুর। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানরা হলেন, লালমনিরহাট সদর, নাটোর সদর. রাজশাহীর গোদাগাড়ী, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ও শাহজাদপুর এবং জামালপুরের মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ।
প্রথম ধাপে ৮৬ উপজেলার মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রার্থী রয়েছেন ১০৬১ জন। এ ধাপে চেয়ারম্যান পদে ২৮০ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪৮২ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩০৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় প্রথম ধাপে ৮ জন প্রার্থী ছিল। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের পর সব মিলিয়ে ২০জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হল। প্রথম ধাপের ভোট হবে ১০ র্মাচ। ভোটের পরই সবার ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করবে ইসি। সব ধরনের আনুষ্ঠানিকতা সেরে গেজেট প্রকাশের জন্য ইসির কাছে রিটার্নিং অফিসারের একীভূত তথ্য দেওয়া হবে। এদিকে দ্বিতীয় ধাপেও ২৫ জন একক প্রার্থী রয়েছেন। বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থী হলে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ১৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৫ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৬ জন রয়েছেন।
পঞ্চম উপজেলা পরিষদের ভোট হচ্ছে পাঁচ ধাপে। মার্চের ১০, ১৮, ২৪ ও ৩১ তারিখ ভোট হবে চার ধাপের। এরমধ্যে প্রথম ধাপে ৮৬ উপজেলা এবং দ্বিতীয় ধাপে ১২৪ উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন প্রার্থীরা। তৃতীয় ধাপে ১২৭ উপজেলা ও চতুর্থ ধাপে ১২২ উপজেলায় ভোট হবে। পঞ্চম ধাপে বাকি উপজেলার ভোট হবে ১৮ জুন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ