Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

মমতাকে দায়ী করে সুইসাইড নোট, গ্রেফতারের দাবি

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যুর জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে দায়ী করে আত্মহত্যা করেছেন গৌরব দত্ত নামে ভারতীয় পুলিশ সার্ভিসের (আইপিএস) সাবেক এক কর্মকর্তা। এ ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে গ্রেফতার করার দাবি জানিয়েছে রাজ্য বিজেপি।
জানা গেছে, কয়েক দিন আগে বিধাননগরে নিজের বাড়িতে আত্মহত্যা করেন গৌরব। সেখান থেকে একটি সুইসাইড নোটও মেলে। তাতে লেখা ছিল, অবসরকালীন বকেয়া মিটিয়ে না দিয়ে তাকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী।
এ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক আক্রমণ। রাজ্য বিজেপির নেতা মুকুল রায় বলেন, ‘বাংলায় এই প্রথম কোন আইপিএস অফিসার নিজের মৃত্যুর জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে দায়ী করলেন। ওনাকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।’
ইতিমধ্যে সুসাইড নোটটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তাতে টাকা বাকি রাখা ছাড়া আরও একটি বিষয়ের উল্লেখ আছে। সেটি হলো গৌরবকে ওএসডি (কম্পালসারি ওয়েটিঙ) করে রাখা। দীর্ঘদিন ওএসডি থাকার পর ১৯৮৬ ব্যাচের এই আইপিএস কর্মকর্তা গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর অবসর নেন। তখন থেকেই তাঁর ভাতা বকেয়া রয়েছে বলে দাবি করেন গৌরব।
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফে এ ব্যাপারে সরকারি ভাবে কিছু বলা হয়নি। তবে সূত্র বলছে গৌরব যে সমস্ত বকেয়ার কথা জানিয়েছেন তার কোনওটাই তাঁর প্রাপ্য নয়। কারণ তিনি ওএসডিতে ছিলেন।
৯ বছর আগে ২০১০ সালে বরখাস্ত হন গৌরব। তাঁর বিরুদ্ধে ‘মারাত্মক› অভিযোগ আনেন এক পুলিশ কনস্টেবলের স্ত্রী। তিনি বলেন, শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে রাজি না হওয়ায় তাঁর স্বামীকে মারধর করেছেন গৌরব। সেবার ৯ মাসের জন্য সাসপেন্ড হন তিনি। ২০১২ সালে আবার তাঁকে ঘিরে বিতর্ক হয়। সেবার আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। পরে তাকে তাকে ওএসডি করে রাখা হয়। সূত্র : এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ