Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ভারত যেন পাকিস্তানের দিকে তাকাবারও দুঃসাহস না করে

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরাইশী বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে পুরো পাকিস্তান এক হয়েছে। পাকিস্তানের সেনা, রাজনৈতিক দল এমনকি শিশুরাও কাশ্মীরের স্বাধীনতার পক্ষে। ভারত যেন পাকিস্তানের দিকে তাকাবারও দুঃসাহস না করে।
রোববার ইসলামাবাদে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি বলেন, পাকিস্তান একটি শান্তিবাদী দেশ। প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে পাকিস্তান শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থাকতে চায়। কিন্তু আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, ভারত যে যুদ্ধের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে, তা দ্রæত বন্ধ করতে হবে। কাশ্মীর ইস্যুতে চলমান পাক-ভারত উত্তেজনার মধ্যে এ কথা বললেন পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
কাশ্মীরের নতুন প্রজন্ম যে কোনো মূল্যে স্বাধীনতা অর্জন করবে জানিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এদেরকে কোনোভাবে দমিয়ে রাখা যাবে না। পুরো কাশ্মীরজুড়ে এখন ভীতিকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ভারতীয় বাহিনী নিরীহ নাগরিকদের বিনা অপরাধে গ্রেফতার চালাচ্ছে। কাশ্মীরি জনগণের বাড়িঘরে লুটপাট করছে।
মাহমুদ কোরাইশী বলেন, আমাদেরকে নিয়ন্ত্রণ বা কাবু করার কোনো ইচ্ছে যদি ভারতের থাকে, তাহলে বিষয়টি তাদের ভুলে যেতে হবে। রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্যই ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) যুদ্ধপরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন মাহমুদ কোরাইশী।
যুদ্ধ কোনো ভালো কাজ নয় মন্তব্য করে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমার জানামতে সুস্থ চিন্তার বিবেকবান মানুষও ভারতে রয়েছে। ভারত সরকারকে তারা চিন্তাভাবনা করে কাজ করার আহ্বান জানাবেন বলে আমি মনে করি।
প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪০ জনের বেশি সিআরপিএফ জওয়ান নিহত হয়। জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ এই ঘটনার দায় স্বীকার করার পরই ভারত জঙ্গি হামলার ইস্যুতে পাকিস্তানের ওপর দায় চাপায়। যদিও ইমরান খানসহ পাকিস্তান এই হামলার দায় অস্বীকার করেছে। ভারত কোনও আক্রমণ চালালে তা প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান। সূত্র : ডন।



 

Show all comments
  • Sujon Khan ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:০১ পিএম says : 0
    Mera Pakistan ho jindabad... Chaliye jao Vai Pakistan.. Pran vore Doa Kori..
    Total Reply(0) Reply
  • مقصودالرحمن سمان ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    সন্ত্রাসী ভারত নিপাত যাক, কাশ্মীর মুক্তি পাক।
    Total Reply(0) Reply
  • Siyful Islam ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    বাপের বেটা তুমি
    Total Reply(0) Reply
  • Ranjit Kumar ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    খালি কলসি বাজে বেশী , চীন যদি না থাকতো তাহলে পাকিস্তানের নাম থাকতো না
    Total Reply(0) Reply
  • Md Tito ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    Pakistani bai me thanks
    Total Reply(0) Reply
  • Nizam Howlader ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    বড় বড় কথায় নয় কাজে প্রমাণ করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Foysal Ahemad Rasel ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    সহমত।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Nazir Hossain Raju ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
    কাশ্মির এক দিন স্বাধিন হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Noresh ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
    পাকিস্তানকে কাবু করতে গিয়ে ভারত নিজেই কাবু হয়ে যাচ্ছে। কাশ্মীর প্রশ্নে, মুসলমান হিসেবে পাকিস্তানের পাশে থাকা, আমাদের বাংলাদেশীদের ঈমানী কর্তব্য!! চেতনা এখানে প্রযোজ্য নয়!!
    Total Reply(0) Reply
  • MD.HASIBUL HASAN ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১১:২১ এএম says : 0
    ভারত এইবার বুঝবে অন্যের পিছনে কাঠি করার মজাটা কী!
    Total Reply(0) Reply
  • Anwar Khan ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৮:৫৫ এএম says : 0
    ভারত গলাবাজি ছাড়া কিছুই পারে না,,, ,বড় জোর হিন্দি ফিল্ম এ কয়েক শত পাকিস্তানিদের মেরে ফেলতে পারে এ আর তেমন কি?
    Total Reply(0) Reply
  • Azizur Rahman ৩ মার্চ, ২০১৯, ১১:১০ এএম says : 0
    আমরা শান্তি, চাই যুদ্ধ হলে সবার ক্ষতি হবে, বিষয়টা সংলাপে বসে সমাধান করা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • md:shojan ২ মার্চ, ২০১৯, ৬:০৪ পিএম says : 0
    আমরা চায় শান্তুি,সবাইত ভাই হোক সে হিন্দু কিংবা মুসলমান,সবারি রক্ত লাল তায় আর যুদ্ব চায় না শান্তি চায় আমরা???
    Total Reply(0) Reply
  • অলিউর রহমান ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭:৪৯ এএম says : 0
    Thanks Pakistan!
    Total Reply(0) Reply
  • mosaddik ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৯:৩৬ এএম says : 0
    পাকিস্তান কে আমাদের সেলুট করতে হবে কারণ তারা মুসলমানের জন্য এই লরাই শুরু করছে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন