Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সরিষাবাড়ীতে ভাতিজাকে গলা কেটে হত্যা করলেন চাচা

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২০ পিএম

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে সিয়াম (৮) নামে এক শিশুকে গলা কেটে করে হত্যা করেছেন তার চাচা। এ সময় চাচার ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে ভাতিজি মীম।
গতকাল সোমবার দিনগত রাতে উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের চাপারকোনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত সিয়াম উপজেলার চাপারকোনা গ্রামের মনছুর আলীর ছেলে ও চাপারকোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্র। আহত মীম (৭) সিয়ামের ছোট বোন।
পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সরিষাবাড়ী উপজেলার চাপারকোনা গ্রামের মনছুর আলীর সঙ্গে তার চাচাতো ভাই সোহেল কামারের দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার রাত প্রায় ৮টার দিকে সিয়াম তার চাচা আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী রুপার কাছে প্রাইভেট পড়তে তাদের ঘরে যায়। এ সময় পূর্ববিরোধের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে সিয়ামকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেন চাচা সোহেল কামার। সিয়ামের ছোট বোন মীম (৭) এ ঘটনা দেখে চিৎকার করলে তাকেও ওই ছুরি দিয়েই হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করেন তিনি। বুকের ডান পাশে ছুরিকাঘাতে আহত হলে মীমকে মুমূর্ষু অবস্থায় সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় হতাহতদের বাবা-মা কেউ বাড়িতে ছিল না বলে জানা গেছে।
শিশু সন্তানের এমন অবস্থা দেখে বাকরুদ্ধ হয়ে সরিষাবাড়ী হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন বাবা-মা। খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী থানার এসআই রফিকুল ইসলাম নিহত সিয়ামের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল থেকে থানায় নিয়ে যান।
এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) জোয়াহেরুল ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গলা কেটে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ