Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

সরিষাবাড়ীতে দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীকে গলা কেটে হত্যা

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৬:৩৫ পিএম

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে সিয়াম (৮) নামে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীকে গলা কেটে হত্যা করেছে তার চাচা। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের চাপারকোনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া কুপিয়ে জখম করা হয়েছে ভাতিজী মীমকে (৬)। গুরুতর অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘাতক চাচা সোহেল মিয়া পলাতক রয়েছে।
নিহত সিয়ামের বাবা মুনসুর আলী জানান, তার ছেলে চাপারকোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সিয়াম (৮) ও মেয়ে মীম (৬) পাশর্^বর্তী আনোয়ারের স্ত্রী রুপা বেগমের কাছে প্রাইভেট পড়তো। প্রতিদিনের মতো সোমবার বিকেলে তারা প্রাইভেট পড়তে গেলে শিক্ষিকা তাদের না পড়িয়ে বাড়ি চলে যেতে বলে তিনি ঘর থেকে বাইরে যান। এ সময় শিশুদের চাচা সোহেল মিয়া অতর্কিত ওই ঘরে ঢুকে কিছু বুঝে উঠার আগেই প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে সিয়ামের গলা কেটে হত্যা করে। পাশে থাকা ছোটবোন মীম চিৎকার শুরু করলে তার বুকেও আঘাত করা হয়। এ সময় স্থানীয়রা ছুটে এসে শিশু দুটিকে উদ্ধার করে সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিয়ামকে মৃত ঘোষণা করেন। হত্যাকান্ডের কোনো কারণ বলতে পারেনি নিহত সিয়ামের বাবা মুনসুর আলী।
সরিষাবাড়ী থানার ওসি মাজেদুর রহমান জানান, ‘নিহত শিশু সিয়ামের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার পরই ঘাতক সোহেল ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া ও ঘাতককে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গলা কেটে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ