Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

হজযাত্রী নিবন্ধনে সাড়া নেই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

হজযাত্রী নিবন্ধনে তেমন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। গত বারো দিনে মাত্র ২ হাজার ৪শ’ ২১ জন হজযাত্রীর নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত সরকারী ব্যবস্থাপনায় ১ হাজার ৪শ’ ৫৮ জন এবং বেসরকারী ব্যবস্থাপনায় ৯শ ৬৩ জন হজযাত্রীর নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামী ১০ মার্চের মধ্যে ১ লাখ ২৭ হাজার ১শ’ ৯৮ জন হজযাত্রীর চূড়ান্ত নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করার কথা। গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব এস এম মুনিরুজ্জামানের স্বাক্ষরিত এক জরুরী চিঠিতে বলা হয়েছে, যথাসময়ে হজযাত্রী নিবন্ধন সম্পন্ন করা না হলে এ বছর হজ পালনে আগ্রহী নন মর্মে বিবেচনা করে পরবর্তী ক্রমিকের প্রাক-নিবন্ধিত ব্যক্তিদের নিবন্ধনের জন্য আহবান জানানো হবে।

সরকার চলতি বছর হজযাত্রী নিবন্ধনে পাসপোর্টকে বাধ্যতামূলক করেছে। গ্রামাঞ্চলের অধিকাংশ হজযাত্রী দেড় মাস থেকে দুই মাসেও পাসপোর্ট হাতে পাচ্ছে না। ফলে হজযাত্রী নিবন্ধন কার্যক্রমে গতি বাড়ছে না। হাব ওলামা সোসাইটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সেন্ট্রাল ট্রাভেলসের স্বত্বাধিকারী মুফতি মতিউর রহমান গাজীপুরী এ অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি হজযাত্রীদের নতুন পাসপোর্ট দ্রুত সরবরাহ করার জন্য পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন। আল নূর ট্রাভেলসের স্বত্বাধিকারী মুফতি জুনায়েদ গুলজার বলেন, নতুন পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য হজযাত্রীরা কাগজপত্র ও টাকা জমা দিয়ে দুই মাসেও পাসপোর্ট হাতে পাচ্ছে না। পাসপোর্ট অধিদপ্তরের গাফিলতির দরুন হজ ব্যবস্থাপনা মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হতে পারে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

হজ এজেন্সী হাজরে আসওয়াদ ট্রাভেলসের স্বত্বাধিকারী মাওলানা শামসুল হক জানান, তার তিন শতাধিক হজযাত্রীর মধ্যে হাতে গোনা কয়েকটি পাসপোর্ট পাওয়া গেছে। এ জন্য নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। পাসপোর্ট অফিস থেকে হজযাত্রীদের নতুন পাসপোর্ট দীর্ঘ দিনেও সরবরাহ করতে না পারায় নিবন্ধন কার্যক্রমে অচলাবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। তিনি হজযাত্রীদের নতুন পাসপোর্ট বিশেষ ব্যবস্থায় দ্রুত সরবরাহের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এছাড়া হজযাত্রীরা হজ প্যাকেজের পুরো টাকা পরিশোধ না করায় নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না বলেও মাওলানা শামসুল হক উল্লেখ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হজ


আরও
আরও পড়ুন