Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

মালদ্বীপের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী নোয়াখালীর পুত্রবধূ

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ভারত মহাসাগরের প্রায় ১২শ’র বেশি দ্বীপ নিয়ে গঠিত মালদ্বীপ। অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি মালদ্বীপের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যারিস্টার দানিয়া মামুন নোয়াখালীর পুত্রবধূ। তার শ্বশুরবাড়ি কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের মুছাপুর গ্রামের ড. মাওলানা আবদুর রহিমের বাড়ি। প্রায় ২০ বছর পূর্বে বিয়ে হলেও গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি ভাইরাল হয়।
ব্যারিস্টার দানিয়া মামুন ২০১৩-২০১৬ মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তার পিতা ড. মামুন আবদুল গাইয়ুম ১৯৭৮-২০০৮ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ত্রিশ বছর মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। লন্ডনে অধ্যয়নকালে দানিয়া মামুনের সাথে শোয়াইবের পরিচয় ঘটে। পরে দুইজন ব্যারিস্টারি পাশ করেন। মামুন আবদুল গাইয়ুম মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট থাকাকালে উভয় পরিবারের সম্মতিতে ব্যারিস্টার শোয়াইব ও ব্যারিস্টার দানিয়া মামুনের বিয়ে সম্পন্ন হয়।
উল্লেখ্য, ব্যারিস্টার শোয়াইবের পিতা ড. মাওলানা আবদুর রহিম ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম মসজিদের গ্র্যান্ড ঈমাম ছিলেন। মুছাপুর গ্রামের বাড়িতে যোগাযোগ করে জানা গেছে, ব্যারিস্টার দানিয়া মামুন কখনো তার শ্বশুর বাড়িতে আসেন নি। বর্তমানে এ দম্পতি লন্ডনে বসবাস করছেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুছাপুর ইউনিয়নের কয়েকজন অধিবাসী ইনকিলাবকে জানান, মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্টের কন্যা ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যারিস্টার দানিয়া মামুনের সাথে ব্যারিস্টার শোয়াইবের বিয়ে হওয়ায় এটা শুধু নোয়াখালীবাসী নয়, বরং দেশবাসীর গর্বের বিষয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মালদ্বীপ

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন