Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

গোদাগাড়ী পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বহিষ্কার

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৪:১৯ পিএম

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেন ও সভাপতি হামিদ রানাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বিষয়টি গোদাগাড়ীর টক অফ দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছে।
বুধবার সকালে গোদাগাড়ী পৌর ছাত্রলীগের এক জরুরী সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গোদাগাড়ী পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি হামিদ রানাকে বহিস্কার করা সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সভায় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে সহসভাপতি মাসুদ রানাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাসুদ রানা ও সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, হামিদ রানা বিবাহিত হওয়া স্বত্ত্বেও সভাপতির পদ ধরে রেখে গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে ছাত্রলীগকে বির্তকিত করেন। আর স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে তিনি ছাত্রলীগকে কলঙ্কিত করেন। তাই ছাত্রলীগের ২৩ এর (ক) ধারা মোতাবেক জেলা ছাত্রলীগের সিদ্ধান্তসহ সর্বসম্মতিক্রমে হামিদ রানাকে সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। এছাড়া পৌর ছাত্রলীগের সর্বসম্মতিক্রমে নেতাকর্মীদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি মাসুদ রানাকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বহিষ্কৃত সভাপতি হামিদ রানা বলেন, বহিষ্কারের বিষয়টি তিনি জানেন না। আর যারা বহিষ্কার করেছেন তারা এটা পারেন না। মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সু-সম্পর্কের বিষয়ে তিনি বলেন, এটা মিথ্যা কথা।
এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি কর্মীদের তোপের মুখে সভা ছেড়ে পালান ছাত্রলীগ নেতা হামিদ রানা। এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। এরপর হামিদ রানাকে নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়। অবশেষে জেলা নেতৃবৃন্দের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে হামিদ রানাকে গোদাগাড়ী পৌনসভা ছাত্রলীগের সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হলো।
অপর দিকে গত সোমবার গোদাগাড়ী পৌর ছাত্রলীগের আর এক কার্য নির্বাহী কমিটির জরুরী সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বহিস্কারের প্রেস বিজ্ঞাপ্তির একটি চিঠি সাংবাদিকদের কাছে পাঠানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞাপ্তিতে বলা হয়, গত সোমবার ২৫ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ ছাত্রলীগ গোদাগাড়ী পৌর শাখার কার্য নির্বাহী কমিটির জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেন ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফাহাদ আলী বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অমান্য করে নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষের প্রার্থীর সাথে ভোট করে যা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র লংঘন করেছেন। সেই সাথে বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে কলঙ্কিত করেছেন মর্মে উপস্থিত সকলে একমত হয়।

বিধায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ১৭ (ক) ধারা মোতাবেক সর্ব সম্মতিক্রমে বহিস্কার করা হলো এবং কার্য নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত খাদিমকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়। সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক বহিস্কার হওয়ায় গোদাগাড়ী ছাত্রলীগের রাজনীতিতে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। কে কার পক্ষে থাকবে সে নিয়ে রশিটানা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ