Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

মেয়র পদে ভোট পড়েছে ৩১.০৫ শতাংশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ মার্চ, ২০১৯, ১:৫৯ পিএম

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৩১.০৫ শতাংশ। যা সংখ্যায় ৯ লাখ ২৩ হাজার ২৬ ভোট। নির্বাচনে ৮ লাখ ৪৯ হাজার ৩০২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম। আর জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. শাফিন আহমেদ পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট।

বৃহস্পতিবার রাত দেড়টায় রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেম আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফলাফল ঘোষণা করেন। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্থাপিত নির্বাচন কমিশনের ফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্র থেকে এসব তথ্য জানানো হয়।
বৃহস্পতিবার সকাল ৮ থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত চলা নির্বাচনে এক হাজার ২৯৫টি কেন্দ্রে মোট ভোট পড়েছে ৯ লাখ ৪২ হাজার ৫৩৯টি। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ১৯ হাজার ৫১৩টি বাতিল করা হয়েছে। এক হাজার ২৯৫টি কেন্দ্রের মধ্যে কোনও কেন্দ্রেরই ভোট স্থগিত হয়নি। ডিএনসিসির ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন।
এদিকে ভোটের আট ভাগের এক ভাগ এককভাবে না পাওয়ায় জামানত হারিয়েছেন মো. শাফিন আহমেদ, মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান, মো. আব্দুর রহিম ও শাহীন খান। তারা যথাক্রমে জাতীয় পার্টি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি, স্বতন্ত্র ও পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
জামানত রক্ষার জন্য একজন মেয়র প্রার্থীকে পেতে হতো এক লাখ ১৭ হাজার ৮১৭ ভোট। জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. শাফিন আহমেদ পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান পেয়েছেন ৮ হাজার ৬৯৫ ভোট (আম প্রতীক নিয়ে), স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুর রহিম টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৪০ ভোট এবং পিপলস ডেমোক্রোটিক পার্টির (পিডিপি) শাহীন খান পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৬০ ভোট। তার প্রতীক ছিল বাঘ। বিজয়ী আতিকুল ছাড়া বাকি চার মেয়র প্রার্থীরই জামানত বাতিল হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ