Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

‘আর কত রক্ত ঝরবে’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

কাশ্মীর নিয়ে পাক-ভারত সীমান্তে যখন যুদ্ধের দামামা, তখন সৌহার্দের বার্তা পৌছে দিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ওয়াসিম আকরাম। তিনি দুদেশের শাসকদের উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে বলেছেন, দুই প্রতিবেশী দেশের সীমান্তে আর কত রক্ত ঝরবে? দুই প্রতিবেশী দেশের এই যুদ্ধংদেহী মনোভাবের আগুনে ঘি ঢালছেন দুদেশের সেলিব্রেটিরাও। বীরেন্দ্রর শেহওয়াগ, গৌতম গম্ভীরসহ ভারতের কয়েকজন ক্রিকেটার এবং অভিনেত্রী তো সরাসরি পাকিস্তানে হামলার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। এতে করে তারা নিজেদের দেশপ্রেমের জানান দিতে চাইছেন। পাকিস্তানের সেলিব্রেটিরাও কম যাচ্ছেন না। এর ব্যতিক্রম পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। তার মতে, জঙ্গিবাদ ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশেরই শত্রু। দুই দেশকে একসঙ্গে এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে বললেন তিনি।
বুধবার টুইটারে ওয়াসিম আকরাম ভারতের উদ্দেশ্যে লেখেন, ভারত ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আমি বলতে চাই- ‘পাকিস্তান তোমাদের শত্রু নয়। তোমাদের শত্রু আমাদেরও শত্রু! আমরা কেন বুঝতে পারছি না আমাদের লড়াই একই। এর আগে আর কত রক্ত ঝরবে? যুদ্ধে জঙ্গিদের পরাজিত করতে হলে দুই ভাইকে একসঙ্গে লড়াইয়ে নামতে হবে।’ এর পর তিনি টুইটে ‘হ্যাশট্যাগ টুগেদারউইউইন’, ‘হ্যাশট্যাগ নোটুওয়ার’ লেখেন।
ওয়াসিম আকরামের এ টুইটটি ভাইরাল হয়ে গেছে। এতে লাইক দিয়েছেন ৩৬ হাজার ৬ মানুষ। আর ৮ হাজার ৯৯৬ জন ভিউয়ার্স টুইটটি পড়ছেন। ওয়াসিম আকরামের সতীর্থ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের উদ্দেশে ওয়াসিম আকরামের বার্তাও ঠিক একই। তিনি প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে অযথা লড়াইয়ে না নেমে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের পরামর্শ দিয়েছেন ইমরান খানকে। জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে ইমরান খান নয়াদিল্লির কাছে আলোচনার বার্তা দেন। এই জটিল পরিস্থিতিতে শান্তির দূত হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেন সুইং কিং।
প্রসঙ্গত, ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সাম্প্রতিক জঙ্গি হামলার জেরে দুই দেশের মধ্যে টানটান উত্তেজনা এবং হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ