Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪১ হিজরী

সাউথ এশিয়ান গেমস ডিসেম্বরে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০১৯, ৯:৩৭ পিএম

অবশেষে সব শঙ্কা কাটিয়ে চূড়ান্ত হলো দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক খ্যাত সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের দিনক্ষণ। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১ থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নেপালের কাঠমান্ডু ও পোখারায় বসছে এসএ গেমসের ১৩তম আসর। শুক্রবার থাইল্যান্ডে দক্ষিণ এশিয়ান অলিম্পিক কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ওইদিন এশিয়ান অলিম্পিক কমিটির (ওসিএ) সভার আগে বসে দক্ষিণ এশিয়ান অলিম্পিক কমিটির সভা। নেপাল অলিম্পিক কমিটির সভাপতি জীবন রাম শ্রেষ্ঠার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভার সিদ্ধান্ত শেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা।

২০১৬ সালে ভারতের গৌহাটি ও শিলংয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১২তম এসএ গেমস। গেল বছর নেপালে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল গেমসের ১৩তম আসর। পরবর্তীতে এবছরের মার্চ এবং সেপ্টেম্বরে দু’দফা সময় দিয়েও কথা রাখতে পারেনি নেপাল। তাই এবার থাইল্যান্ডে ওসিএ’র সভায় বসেন দক্ষিণ এশিয়ান অলিম্পিক কমিটির কর্তারা। সম্প্রতি রাজনৈতিক অস্থিরতায় ফ্লাইট বন্ধ থাকায় সভায় অংশ নিতে পারেননি ওসিএ’র বিভিন্ন পদে থাকা পাকিস্তান ও ভারতের কর্মকর্তারা। পাকিস্তান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (পিওএ) উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিক সভায় অংশ নিলেও আসতে পারেননি ওসিএ’র পিওএ’র প্রধান লে. জেনারেল (অব.) আরিফ হাসান ও সম্পাদক খালিদ মাহমুদ। রোববার তারা ব্যাংককে পৌঁছবেন।

আসন্ন এসএ গেমসে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও আফগানিস্তানের ক্রীড়াবিদরা ২৭টি ডিসিপ্লিনে অংশ নেবেন। ডিসিপ্লিনগুলো হলো- আরচ্যারি, অ্যাথলেটিক্স, ব্যাডমিন্টন, বাস্কেটবল, বক্সিং, ক্রিকেট, সাইক্লিং, ফেন্সিং, ফুটবল, গলফ, হ্যান্ডবল, জুডো, কাবাডি, কারাতে, খো খো, প্যারাগ্লাইডিং, শ্যুটিং, স্কোয়াশ, সুইমিং, টেবিল টেনিস, তায়কোয়ান্ডো, টেনিস, ট্রায়াথলন, ভলিবল, ভারোত্তোলন, কুস্তি ও উশু।

গেমসের নতুন দিনক্ষণ ডিসেম্বরে নির্ধারণ হওয়ায় কিছুটা অস্বস্তিতে ছিলেন কর্মকর্তারা। কারণ ওই সময়ে প্রচন্ড ঠান্ডা পড়বে হিমালয় কন্যা নেপালে। কিন্তু এমন আশঙ্কা উড়িয়ে দিলেন জীবন রাম শ্রেষ্ঠা। তিনি বলেন, ‘২০১৬ সালে গৌহাটি ও শিলংয়েও গেমস হয়েছে। সেখানে যদি সমস্যা না হয়ে থাকে, তাহলে কাঠমান্ডু ও পোখারাতেও কোন সমস্যা হবে না ক্রীড়াবিদদের। কারণ আসাম, মেঘালয়ের মতোই আবহাওয়া কাঠমান্ডুতে।’ শাহেদ রেজা বলেন, ‘আমার জানা মতে ডিসেম্বরে কাঠমান্ডুতে ২২ থেকে ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা থাকবে। তাই কোন সমস্যা হবে না।’ সভায় অংশ নেয়া বিওএ’র মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) ফখরুদ্দিন হায়দার বলেন, ‘ডিসেম্বরেই শেষবারের মতো সময় নির্ধারণ করেছে নেপাল। এরপর আর তারা গেমস পেছাতে পারবে না। যদি আবারো তারা গেমস পেছায় তাহলে নেপাল আয়োজক দেশ হিসেবে স্বীকৃতি হারাবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাউথ এশিয়ান গেমস
আরও পড়ুন