Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বর্ষায় নৌকা, অন্য সময় বাঁশের সাঁকোই ভরসা

ইদিলপুর-চকমারম ঘাটে নেই ব্রিজ

প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আফতাব হোসেন, চাটমোহর (পাবনা) থেকে

পাবনার চাটমোহর উপজেলার ফৈলজানা ইউনিয়নের ইদিলপুর-চকমারম ঘাটে একটি ব্রিজ না থাকায় চরমভাবে জনদুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এলাকার মানুষেরা যারপরনাই ভোগান্তিতে পড়ছেন। স্কুল, কলেজগামী ছেলেমেয়েদের সমস্যা হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। ইজারার মাধ্যমে চলে এই ঘাটটি। বর্ষায় নৌকা আর অন্য সময়ে বাঁশের চরাট/সাঁকোই ভরসা। বর্ষায় নৌকার জন্য অপেক্ষা করতে হয় ব্যাপক সময় ধরে। এক ঘাট হতে নৌকা ছাড়লে ঘণ্টারও বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয় পার হওয়ার জন্য। নৌকাটি আবার ঘাটে আসবে তারপর পার হতে হয়। বাঁশের সাঁকো বা চরাট অনেক সময় নষ্ট হয়ে থাকলেও যেন দেখার কেউ নেই। গত এক সপ্তাহ ধরে চরাটটি পানিতে ডুবে আছে। ফলে এই ঘাট দিয়ে পানি মাড়িয়ে জনগণ চলাচল করছেন। কোন রকম যানবাহন চলাচল করতে পারে না। রাস্তাটি তলিয়ে যাওয়ায় দুবলাপাড়া, ইদিলপুর, দিয়ারপাড়াসহ বিভিন্ন গ্রামের মানুষ ও শিক্ষার্থীদের চলাচলে দারুণ সমস্যা হচ্ছে। এছাড়া এই ঘাটের রাস্তা দিয়েই অন্তত ৮ গ্রামের হাজার হাজার মানুষ ও শিক্ষার্থীদের চলাফেরা করতে হয়। ইউনিয়ন পরিষদ, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, হাটবাজার এবং চাটমোহর উপজেলা সদরেসহ জেলায় যোগাযোগ করতে হয়। এলাকাবাসী ফৈলজানা ইউনিয়নের ইদিলপুর-চকমারম ঘাটে একটি ব্রিজ নির্মাণের জন্য জনপ্রতিনিধেদের দ্বারস্থ হয়ে বিফল হয়েছে। নির্বাচনের সময় জনপ্রতিনিধিরা ব্রিজ নির্মাণের ওয়াদা দিলেও নির্বাচনের পরে তা রক্ষা করা হয় না। ব্রিজের অভাবে এলাকার উৎপাদিত কৃষি পণ্যও সংশ্লিষ্ট হাটবাজারে নিতে না পারায় কম দামেই স্থানীয়ভাবে বিক্রি করতে বাধ্য হন কৃষকেরা। এলাকাবাসী ফৈলজানা ইউনিয়নের ইদিলপুর-চকমারম ঘাটে একটি ব্রিজ অনতিবিলম্বে তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বর্ষায় নৌকা
আরও পড়ুন