Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৪ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ভুল চিকিৎসায় এরশাদের সঙ্গী হুইল চেয়ার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

দোর্দন্ড প্রতাবশালী স্বৈরশাসক সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সিংগাপুরসহ বিশ্বের দেশে দেশে বিখ্যাত চিকিৎসকদের চিকিৎসা নিয়ে থাকেন। অথচ এখন চলাফেরা করতে পারেন না; হুইল চেয়ার তার নিত্যসঙ্গী। ভুল চিকিৎসার কবলে পড়ে তাঁর হয়েছে এই হাল। তার হয়েছিল লিভারের অসুখ; অথচ দেয়া হয়েছে ক্যান্সারের চিকিৎসা। গতকাল এই ভয়াবহ তথ্য দিয়েছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বলেছেন, চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসায় এরশাদ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। এরশাদের ক্যান্সার না হলেও তাকে ক্যান্সারের ওষুধ দেন চিকিৎসকরা। অথচ সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার ক্যান্সার হয়নি। ভুল চিকিৎসায় লিভারসহ শারীরিকভাবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। গতকাল নিজ নির্বাচনী এলাকা রংপুরে এরশাদ ৪ দিনের সফরে যান। সফরসঙ্গী হিসেবে রংপুরে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এই তথ্য জানান মসিউর রহমান রাঙ্গা। এরশাদ হেলিকপ্টারযোগে রংপুর সেনানিবাসে পৌঁছান। এরপর সেনানিবাস থেকে নিজ বাসায় যান। সেখান থেকে নগরীর গ্রান্ড প্যালেস হোটেলে ওঠেন। এসময় জাপা নেতাকর্মীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। তিনি হুইল চেয়ারে চলাফেরা করেন। কিন্তু উপস্থিত সাংবাদিক ও জাপা নেতাকর্মীদের সঙ্গে কোনো কথা না বলে হোটেলে তার নির্ধারিত কক্ষে চলে যান।
জাপার মহাসচিব বলেন, এইচএম এরশাদ ভুল চিকিৎসার শিকার হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। ভুল করে তাকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ফলে তার লিভার ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পাশাপাশি রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে গিয়েছিল। তিনি আরো বলেন, এরশাদের ভুল চিকিৎসা রিপোর্ট দেয়া হয়। ওই রিপোর্টে ক্যান্সারের কথা উল্লেখ করা হয়। সেই মতে তাকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেয়া হয়। ভুল ওষুধ প্রয়োগের ফলে এরশাদের স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে। লিভার ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার ফলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। হাঁটা-চলা করতে পারতেন না। পরে তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হলে ভুল চিকিৎসার বিষয়টি ধরা পড়ে। সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নেয়ার পর তিনি এখন অনেকটা সুস্থ।
রাঙ্গা জানান, এরশাদ চিকিৎসা শেষে সিংগাপুর থেকে দেশে ফেরার পর রংপুরে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। তাই রংপুরে এসেছেন তিনি। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) মো. খালেদ আখতার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রসিক মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ও রংপুর সদরের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আহমেদ প্রমুখ।



 

Show all comments
  • Mohammad Iman Hossan ৪ মার্চ, ২০১৯, ১২:১৮ পিএম says : 0
    May Allah bless him
    Total Reply(0) Reply
  • md sabbir hossain ৫ মার্চ, ২০১৯, ৪:৪৯ পিএম says : 0
    ভূল চিকিৎসা করায় ডাক্তারের শাস্তি হওয়া উচিত। যাতে ওই ডাক্তার আর কোন ভূল চিকিৎসা করতে না পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:১১ পিএম says : 0
    ভুল চিকিৎসা আবার কি? ওরা ডাক্তাররা কি বা জানে? সবাই মনে রাখিবেন একমাত্র চিকিৎসা ইসলাম। এছারা প্রকৃত পক্ষে সত্যিকারের আর কোন চিকিৎসা নাই। ডাক্তার নামের মিত্যাবাদীদের কাছে গেলে ওরা ওদের চিকিৎসার মাধ্যমে মানূষকে পংগু করে মানূষের জীবন ধংস করিয়া দেয়। আমার মতে এই নিরবোধেরা হায়াত থাকিতে মানূষকে মেরে ফেলে। বরতমান বিশ্বে বড় খোনী হচ্ছে এই ডাক্তারগুলা। সবাই শাবদান থাকেন, ইসলাম জানেন আল্লাহ তা'আলাকে জানেন আর সূস্থ থাকেন। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২৫ মার্চ, ২০১৯, ৮:১৯ এএম says : 0
    ভুল চিকিৎসা আবার কি? ওরা ডাক্তাররা কি বা জানে? সবাই মনে রাখিবেন একমাত্র চিকিৎসা ইসলাম। এছারা প্রকৃত পক্ষে সত্যিকারের আর কোন চিকিৎসা নাই। ডাক্তার নামের মিত্যাবাদীদের কাছে গেলে ওরা ওদের চিকিৎসার মাধ্যমে মানূষকে পংগু করে মানূষের জীবন ধংস করিয়া দেয়। আমার মতে এই নিরবোধেরা হায়াত থাকিতে মানূষকে মেরে ফেলে। বরতমান বিশ্বে বড় খোনী হচ্ছে এই ডাক্তারগুলা। সবাই শাবদান থাকেন, ইসলাম জানেন আল্লাহ তা'আলাকে জানেন আর সূস্থ থাকেন। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২৫ মার্চ, ২০১৯, ৮:২০ এএম says : 0
    ভুল চিকিৎসা আবার কি? ওরা ডাক্তাররা কি বা জানে? সবাই মনে রাখিবেন একমাত্র চিকিৎসা ইসলাম। এছারা প্রকৃত পক্ষে সত্যিকারের আর কোন চিকিৎসা নাই। ডাক্তার নামের মিত্যাবাদীদের কাছে গেলে ওরা ওদের চিকিৎসার মাধ্যমে মানূষকে পংগু করে মানূষের জীবন ধংস করিয়া দেয়। আমার মতে এই নিরবোধেরা হায়াত থাকিতে মানূষকে মেরে ফেলে। বরতমান বিশ্বে বড় খোনী হচ্ছে এই ডাক্তারগুলা। সবাই শাবদান থাকেন, ইসলাম জানেন আল্লাহ তা'আলাকে জানেন আর সূস্থ থাকেন। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরশাদ

৮ এপ্রিল, ২০১৯
২৫ মার্চ, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন