Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সুইডেন ও ডেনমার্কের উদ্যোক্তাদের বেশি বিনিয়োগের আহবান ঢাকা চেম্বারের

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ মার্চ, ২০১৯, ৭:৩৬ পিএম

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)’র সভাপতি ওসামা তাসীর এর সাথে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শারলট স্লাইটার এবং বাংলাদেশস্থ ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত উইনি ইসট্রাপ পিটারসেন সাক্ষাৎ করেছেন। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) ঢাকা চেম্বার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি ডেনমার্ক ও সুইডেনের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে আরো বেশি হারে বিনিয়োগের আহবান জানিয়ে বলেন, স্বাধীনতার পরবর্তী সময়কালে বাংলাদেশের সাথে ডেনমার্ক এবং সুইডেনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্ক উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ সুইডেন ও ডেনমার্কে তৈরি পোষাকের পাশাপাশি হিমায়িত খাদ্য, কৃষিজাত পণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য, কেমিক্যাল ও টয়লেট সামগ্রী, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, চামড়াজাত পণ্য, সিরামিক, হোমটেক্সটাইল এবং তথ্য-প্রযুক্তি প্রভৃতি পণ্য রপ্তানি করছে।

ডিসিসিআই সভাপতি বলেন, বাংলাদেশ এবং সুইডেন ও ডেনমার্কের উদ্যেক্তাদের তথ্য-প্রযুক্তি বিনিময়, তৈরি পোষাক এবং দক্ষতা উন্নয়নে যৌথ বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য নানাবিধ প্রণোদনা প্রদান করছে এবং এ প্রণোদনাসমূহ গ্রহণ করে তিনি সুইডেন ও ডেনমার্কের উদ্যোক্তাদের তৈরি পোষাক, সমুদ্রগামী জাহাজ নির্মাণ, ফার্মাসিউটিক্যাল, কৃষিজাত পণ্য, চামড়া ও পাদুকা, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং এবং অটোমোবাইল প্রভৃতি খাতে বিনিয়োগের আহবান জানান।

সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শারলট স্লাইটার বলেন, বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হওয়ার পথে রয়েছে এবং ইতোমধ্যে বর্হিবিশ্বে বাংলাদেশের ইতিবাচক ভাবর্মূতি তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশ এগিয়ে রয়েছে, তবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি কে আরো বেগবান করার জন্য দীর্ঘমেয়াদী বাণিজ্য নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে। তিনি বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য সহ সকল নীতিমালার সহজীকরণ ও যুগোপযোগীর উপর জোরারোপ করেন। সুইডেনের রাষ্ট্রদূত বলেন, নরডিক দেশসমূহের প্রতিষ্ঠানগুলো গবেষণা ও নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনে উল্লেখ্যযোগ্য অগ্রগতি সাধন করেছে এবং নরডিক অঞ্চলের এ ধরনের প্রতিষ্ঠান আরো বেশি হারে বিনিয়োগ করলে বাংলাদেশের স্থানীয় প্রতিষ্ঠানসমূহ দক্ষতা বাড়ানোর সুযোগ পাবে।

ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত উইনি এসট্রাপ পিটারসেন বলেন, ডেনিশ কোম্পাীনদের বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহ রয়েছে এবং বাংলাদেশে ডেনমার্কের বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশস্থ ডেনমার্ক দূতাবাস নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার জন্য ব্যবসা পরিচালনার সূচক সহ অন্যান্য সূচকে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করতে হবে এবং এ বিষয়ে ডেনমার্ক বাংলাদেশের সাথে একযোগে কাজ করতে আগ্রহী। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদশের ইতিবাচক ভাবমূর্তিকে আরো ব্যাপক আকারে প্রচার করতে হবে।


ডিসিসিআই ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি ইমরান আহমেদ, পরিচালক হোসেন এ সিকদার, কে এম এন মঞ্জুরুল হক, মোহাম্মদ বাশীর উদ্দিন এবং এস এম জিল্লুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডিসিসিআই

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ