Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

বায়ুদূষণের শীর্ষে ভারত, ঢাকা ১৭তম

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

বিশ্বে দূষিত বায়ুর ২০টি শহরের মধ্যে ১৮টিই বাংলাদেশ, ভারত এবং পাকিস্তানের। দূষণের শহরের সূচকে শীর্ষে রয়েছে ভারতের গুরুগ্রাম। ১৭তম অবস্থানে আছে ঢাকা। এরপরেই আবার ভারতের গায়া শহর। দূষণের ২৩তম অবস্থানে কলকাতা। তবে এ দূষণ থেকে আগের চেয়ে অনেক উন্নতি পেয়েছে চীনা শহরগুলো।
বেসরকারি সংস্থা গ্রিনপিস এবং এয়ারভিজুয়ালের নির্ভরযোগ্য জরিপ বলছে, বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত এলাকা ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লির উপক‚লীয় শহরটি। এছাড়া বিশ্বের শীর্ষ ১০টি দূষিত শহরের মধ্যে ভারতেরই সাতটি। বাকি তিনটি শহরের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে পাকিস্তানের ফয়সলাবাদ, অষ্টম চীনের হুতান এবং ১০তম দূষিত শহর পাকিস্তানের লাহোর। শীর্ষে থাকা গুরুগ্রামসহ ভারতের সাতটি শহর হলো- গাজিয়াবাদ, ফরিদাবাদ, বিওয়াদি, নইদা, পাটনা এবং লক্ষৌ। এদিকে, জরিপ অনুয়ায়ী বায়ু দূষণ সমস্যার কথা আসলেই দক্ষিণ এশিয়ার নাম চলে আসে। কেননা, বায়ু দূষণে শীর্ষে থাকা দেশগুলোর সবই এ অঞ্চলের। সূচকে শীর্ষ ৩০টি শহরের মধ্যে ২২টিই ভারতের। চীনের পাঁচটি, পাকিস্তানের দু’টি এবং বাংলাদেশের একটি, ঢাকা।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, ২০১৮ সালে গুরুগ্রামের গড় ইপিএ (মার্কিন পরিবেশ সুরক্ষা সংস্থার গ্রেড) ছিল ১৩৫.৮। যা মার্কিন পরিবেশ সুরক্ষা সংস্থার তথ্য অনুযায়ী স্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত। তবে শহরটির বায়ু এক বছরে তিনবার ইপিএ গ্রেড অতিক্রিম করেছে দূষণে। গত বছরের দুইমাস গুরুগ্রামের ইপিএ ছিল ২০০। যা খুবই অস্বাস্থ্যকর। এছাড়া তখন সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল, গুরুগ্রামে প্রত্যেকের স্বাস্থ্যেই গুরুতর প্রভাব পড়তে পারে। জরিপটি বলছে, চলতি বছরে বায়ু দূষণের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী প্রায় সাত মিলিয়ন মানুষের অকাল মৃত্যু ঘটতে পারে। সেই সঙ্গে বায়ু দূষণ বিশ্বে বড় ধরনের একটি অর্থনৈতিক প্রভাব ফেলবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বায়ুদূষণ

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন