Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

শিরোপা উৎসব

প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইউরোপিয়ান ফুটবলে গতকাল ছিল উৎসবের দিন। শিরোপা নিয়ে সমর্থকদের সাথে উল্লাস করেন দলের সদস্যরা। এ সময় প্রিয় দলের পতাকা হাতে রাস্তায় নেমে আসেন হাজারো সমর্থক
লা লিগা
বার্সেলোনার প্রধান সড়কগুলো গতকাল পরিণত হয়েছিল জনসমুদ্রে। প্রিয় দল বার্সেলোনার ২৪তম শিরোপা উৎসবের প্যারোডে যোগ দিতে বার্সার পতাকা হাতে ১ লক্ষাধিক সমর্থক নেমে এসেছিল রাস্তায়। উৎসবের শুরুটা শনিবার রাতে গ্রানাডাকে ৩-০ গোলে হারানোর পর থেকে। তবে গতকাল সেই উৎসবে নতুন মাত্রা যোগ করে প্রিয় নায়কেরা সমর্থকদের সাথে যোগ দেয়ায়। স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় ছাদখোলা বাসে সিউভাত এসপোর্তিভো থেকে যাত্রা শুরু করে দুই ঘন্টা আনন্দযাত্রার পর ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে পৌঁছায় পুরো বার্সেলোনা দল। বাসের সামনে সতর্কতার সাথে গর্বিত ট্রফি নিয়ে ছিলেন জেরার্ড পিকে। এসময় খেলোয়াড়রা সমর্থকদের সাথে ছবি তুলে, আতসবাজি ও রঙিন কাগজের ফোয়ারায় ডুবে উল্লাস করে করে কাতালানরা। মৌসুমে এখনো একটি ম্যাচ বাকি কাতালানদের। আগামী ২২ মে কোপা দেল রে’র ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ সেভিয়া।

বুন্দেসলিগা
টানা চতুর্থ ও বুন্দেসলিগার ইতিহাসে ২৬তম শিরোপা জয়ের আনন্দ ভাগাভাগি করতে গতকাল মিউনিখের রাস্তায় নেমে এসেছিল বায়ার্ন মিউনিখের হাজারো ভক্ত-সমর্থক। এসময় শিরোপা বহনকারী একটা ছাদ খোলা গাড়িতে ছিলেন মিউনিখের চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্যরা। তারা জড়ো হয়েছিল সেন্ট্রাল স্কয়ার মারিয়েনপ্লাজে। খেলোয়াড়দের সাথে ছিলেন দলের বিদায়ী কোচ পেপ গার্দিওলাও। ভক্তদের সামনে গর্বের সাথে শিরোপা উঁচিয়ে ধরেন টমাস মুলাররা। হ্যানোভারকে ৩-১ গোলে হারিয়ে রানার্স-আপ বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের চেয়ে ১০ পয়েন্টে এগিয়ে লিগ শেষ করে তারা। শেষ ম্যাচের ১২তম মিনিটে গোল করে বুন্দেসলিগার ইতিহাসে গত ৩৯ বছরে ৩০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন রবার্ট লেভান্দোভস্কি। এক মৌসুমে বুন্দেসলিগার ইতিহাসে এবার সবচেয়ে কম গোল খেয়ে মৌসুম শেষ করার রেকর্ডও তার দল। মৌসুমজুড়ে ৩৪ ম্যাচে মাত্র ১৭টি গোল হজম করে তারা।

সিরিআ
শিরোপা নিশ্চিত হয়েছিল ৩ ম্যাচ আগে। কিন্তু শেষটাও চ্যাম্পিয়নদের মত না হলে কি চলে? টানা পাঁচ বারের মত শিরোপা উচিয়ে ধরার আগে সাম্পদরিয়াকে তাই ৫-০ গোলের বড় ব্যবধানে হারায় জুভেন্টাস। প্রথম কোন দল হিসেবে দুই বার টানা ৫ মৌসুম চ্যাম্পিয়ন হল বুফনের দলটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা নাপোলির চেয়ে ৯ পয়েন্ট এগিয়ে লিগ শেষ করেছে তারা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিরোপা উৎসব
আরও পড়ুন