Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

গোদাগাড়ীতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রচারে দু দফা হামলা

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০১৯, ৩:০২ পিএম

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) বদিউজ্জামানের নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর, প্রচার গাড়িতে হামলা, কর্মীদের মারধর ও প্রচার মাইক ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার বাসুদেবপুর কামারপাড়া এলাকায় বদিউজ্জামানের একটি প্রচার মাইক ভেঙে ফেলা হয়। একটি অটোরিকশায় করে প্রচারে চলানো হচ্ছিল। হামলাকারীরা সেই গাড়িটিও ভাঙচুর করেছে। একই এলাকায় বিকেলে দুইটি মাইক্রোবাসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে।
আগামী ১০ মার্চ অনুষ্ঠেয় গোদাগাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এবার আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউজ্জামান।

বদিউজ্জামান বলেন, গোদাগাড়ী উপজেলা সদরে তার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। গত সোমবার দিবাগত রাতে তার গোদাগাড়ী সদর ইউনিয়নের কার্যালয় ভেঙে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে কামারপাড়া এলাকায় তার কর্মীরা ‘আনারস’ প্রতীকের প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। সেখানে হামলা চালানো হয়। হামলায় তাদের তিনজন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন। এদের একজনকে গোদাগাড়ীতে ৩১ শয্যার হাসপাতালে ও অপর দুইজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিমুল আকতার বলেন, হামলার খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাকে জানিয়েছেন, সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক। এ দিকে গোদাগাড়ী উপজেলায় কর্মরত এএসপি সার্কেল লৎফর রহমান বলেন, হামলার হয়েছে, ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। কোনভবে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

রাজশাহীর পুলিশ সুপার মো. শহীদুল্লাহ বলেন, বিকেলের ঘটনার খবরটি তারা পেয়েছেন। সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার সাইফুল ইসলামও একই কথা বলেছেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা পরিষদ নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন