Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

এস-৪০০ বাতিল নয়, পরবর্তীতে এস-৫০০ কেনা হবে: এরদোয়ান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৯, ১১:৫১ এএম

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোয়ান বলেছেন, রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনা থেকে বিরত হবে না তার দেশ। মার্কিন চাপের কারণে রাশিয়ার সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তি থেকে তার দেশ সরবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

পরবর্তীতে তুরস্ক এস-৫০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও কিনতে পারে বলে উল্লেখ করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

ইরানি গণমাধ্যম পার্সটুডে বলছে, চ্যানেল-২৪ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এরদোয়ান বলেছেন, রাশিয়ার সঙ্গে এ সংক্রান্ত চুক্তি হয়ে গেছে। এটা থেকে সরার সুযোগ নেই। এখন এই চুক্তি বাতিল করা হবে অনৈতিক।

আমেরিকার শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা ও ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর প্রধান জেনারেল কার্টিস স্ক্যাপ্যারোটি এস-৪০০ ইস্যুতে তুরস্কের সমালোচনা করার পর তিনি এসব কথা বললেন।

মার্কিন ওই জেনারেল বলেছেন, তুরস্ক যদি রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনে তাহলে আঙ্কারাকে উচ্চ প্রযুক্তির এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান সরবরাহ করা উচিত হবে না।

এর আগেও তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেছেন, এস-৪০০ নিয়ে আর বিতর্কের সুযোগ নেই। রাশিয়া থেকে এই ব্যবস্থা কেনার বিষয়টি চূড়ান্ত হয়ে গেছে। তবে আমেরিকা কখনো তার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্যাট্রিয়ট বিক্রির জন্য উপযুক্ত পরিস্থিতি তৈরি করলে আঙ্কারা তাদের কাছ থেকেও তা কিনবে।

আমেরিকা তুরস্ককে এস-৪০০ কেনার সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য চাপ দিয়ে আসছে। তবে তুরস্ক এর আগেও বলেছে, তারা মার্কিন চাপের কাছে নতি স্বীকার করবে না।

গত বছরের ২৬ মে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, এস-৪০০ কেনার ক্ষেত্রে তুরস্ককে বাধা দেওয়ার কোনো অধিকার আমেরিকার নেই। ২০১৭ সালে তুরস্ক ও রাশিয়ার মধ্যে এস-৪০০ ক্রয় সংক্রান্ত চু্ক্তি সই হয়।

উল্লেখ্য, ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো, বিশেষ করে আমেরিকা, তুরস্কের এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করছে। কিন্তু আঙ্কারা বলছে, আঞ্চলিক নিরাপত্তার কারণে তাদের এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র দরকার।



 

Show all comments
  • ash ৭ মার্চ, ২০১৯, ৮:৪৬ পিএম says : 0
    THATS THE MAN !! THATS CALL LEADER WITH GUTTTS !! NOT A ASS LICKER
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন